বাড়ির চালার ভিতর থেকে বেরিয়ে এলো দানব আকৃতির কিং কোবরা, লেজ ধরে টানতে গিয়ে যা হলো যুবতীর সাথে, রইলো ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বর্তমান যুগের এমন একটা প্লাটফর্ম যেখানে খুব সহজেই সমস্ত কিছু ভাইরাল হয়ে ওঠে যা হয়তো খালি চোখে কখনোই আমরা দেখতে পেতাম না। এই মাধ্যমগুলির সাহায্যে বিশ্বের দূর-দূরান্তের মানুষের সাথে খুব সহজেই আমাদের যোগাযোগ হয়। একটা সময় ছিল যখন আমাদের খবরা-খবর অথবা বিভিন্ন ঘটনাবলী জানার জন্য টেলিভিশন বা সংবাদপত্রের উপর নির্ভর করতে হতো।

তবে এখন মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই পরিবর্তন হয়ে গিয়েছে পরিস্থিতির। আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কোন ঘটনা কয়েক মিনিটে ভাইরাল হয়ে ওঠে ‌। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটি সকলেই এখন এই সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে ভাইরাল। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে চলে এসেছি এ রকমই একটি ভাইরাল ভিডিও নিয়ে বিশেষ আলোচনা।

সাপ সংক্রান্ত ভিডিও কমবেশি এর আগেও আপনারা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখেছেন। তবে আজকের ভিডিওটি দেখলে নিঃসন্দেহে যে কেউ অবাক হতে বাধ্য হবেন। ভাইরাল এই ভিডিওটির কোথাকার যদিও তা জানা যায়নি। ভিডিওর শুরুতে দেখা যাচ্ছে এক গ্রামের বাড়িতে কোন রকম ভাবে বিষধর কোবরা সাপ ঢুকে গিয়েছে।

দীর্ঘ সময় ধরে চেষ্টা করার পরেও বাড়ির বাসিন্দারা ওই সাপটিকে বাইরে বের করে নিয়ে আসতে পারেননি। এমতাবস্থায় আর কোন উপায় না থাকায় শেষ পর্যন্ত তারা এক সর্পরক্ষককে খবর দিতে বাধ্য হন। সাধারণত পুরুষ সর্পরক্ষকদের আমরা এর আগে অনেকবার দেখেছি। তবে বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো একজন মহিলা সর্পরক্ষকের।

গ্রামের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে দীর্ঘ সময়ের চেষ্টার পর বাড়ির উপরের অংশের চালা থেকে শেষ পর্যন্ত অনেক কষ্টে এই সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন যুবতী।। একজন মহিলা হওয়ার পরেও তিনি যেভাবে এই সাপ উদ্ধারের কাজটি করেছেন তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার যোগ্য।

যদিও প্রথমে তাকে বেশ কয়েকবার এই কাজে ব্যর্থ হতে হয়েছিল। কারণ সাপটি চালার এতটাই ভিতরে ঢুকে গিয়েছিল যে তাকে কোনো রকম ভাবে বের করে আনা যাচ্ছিল না। মইয়ের সাহায্যে উপরে উঠে মহিলা শেষ পর্যন্ত সাপটিকে বের করে নিয়ে আসতে সক্ষম হন। সাপটিকে বের করে নিয়ে আসার পর গ্রামবাসীরা সকলেই এই যুবতীর প্রশংসা করেন।

এই যুবতীর একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে যেখান থেকে নানান সাপ উদ্ধারের ভিডিও শেয়ার করে থাকেন তিনি। ভাইরাল এই ভিডিওটিও তার চ্যানেল থেকেই শেয়ার করা হয়েছে যা এখনো পর্যন্ত 2 মিলিয়নের কাছাকাছি মানুষ দেখে নিয়েছেন। পছন্দ করেছেন প্রায় 27000 মানুষ। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে আপনারাও কিন্তু অবশ্যই এই ভাইরাল ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না।

Back to top button