খুবই সামান্য খরচে অল্প জায়গাতেই বানান ৫ বেডরুমের সুন্দর বাড়ি, রইলো খরচের পরিমাণ সহ বাড়ির আধুনিক ডিজাইন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে মানুষের পক্ষে কিন্তু একটি স্থায়ী বাসস্থান তৈরি করা বিশেষ প্রয়োজন হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ একটা স্থায়ী বাসস্থান ছাড়া কখনোই ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত বলে ধরা যায় না। কিন্তু উপযুক্ত পরিকল্পনার অভাবে অনেক ক্ষেত্রেই কিন্তু এই স্থায়ী বাসস্থান নিয়ে নানান সমস্যার লক্ষ্য করা যায়।

তাই আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে এমন একটি ডিজাইন শেয়ার করে নিতে চলেছি যার মাধ্যমে খুব সহজেই কিন্তু একটা ৩ কাঠা জমির উপর পাঁচ বেড রুমের একতলা বাড়ি তৈরি করে নিতে পারবেন আপনারা। যদি সম্প্রতি বাড়ি তৈরি করার কথা চিন্তাভাবনা করছেন তাহলে আমাদের এই পরিকল্পনাটি ভালোভাবে পড়ে নিন এবং সঙ্গে থাকা ভিডিওটি দেখে নিন। আশা করছি এটি আপনাদের অনেকটাই সাহায্য করবে।

৫ বেডরুম বিশিষ্ট একতলা বাড়ি তৈরি করার জন্য আজ আমরা যে ডিজাইনটি আপনাদের দেখাবো তার প্রবেশপথের শুরুতেই থাকছে সিঁড়ির ঘর কাম ড্রয়িং রুম। যেহেতু এই জায়গাটির অনেকটা স্পেস তাই একসাথে দুটো কাজে আপনারা ব্যবহার করতে পারেন।। প্রবেশ পথ থেকে ঠিক দুই পাশে থাকছে দুটি মাস্টার বেডরুম এবং সংলগ্ন বাথরুম।

এই দুটি বেডরুম খুব সহজেই গেস্ট অর্থাৎ বাড়িতে আসা অতিথিদের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। ড্রয়িং রুম থেকে সোজা গেলেই আপনারা পেয়ে যাবেন বিশাল একটি ডাইনিং এরিয়া বা লিভিং রুম। ডাইনিং রুমের ঠিক বাম পাশে আপনারা যে ফাঁকা জায়গাটি পাচ্ছেন সেখানে খুব সহজেই কিন্তু কমন বাথরুম তৈরি করে নিতে পারবেন। কমন বাথরুম অর্থাৎ যেটা বাড়ির সবাই সব সময় ব্যবহার করতে পারবে।

ডাইনিং এরিয়া থেকে ঠিক ডানদিকে গেলেই আপনারা কিন্তু পেয়ে যাচ্ছেন কিচেন অর্থাৎ রান্নাঘর। অন্যদিকে ডাইনিং রুমের ঠিক সোজাসুজি গেলে আপনারা পেয়ে যাচ্ছেন পরপর তিনটি বেডরুম। পরিবারের সদস্য সংখ্যা কম থাকলে বেডরুম গুলির মধ্যে দুটিকে স্টাডি রুম এবং পুজোরঘর হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। মোটামুটি জমি ছাড়া সম্পূর্ণ বাড়িটি মার্বেল ফিনিশিং করে ইন্টেরিয়ার ডেকোরেশন সহ রং করতে আপনাদের খরচ পড়বে প্রায় ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা।

ভিডিওটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://youtu.be/hxPXvqDod6k

জিনিসের মূল্যবৃদ্ধি অনুযায়ী খরচের কিছুটা হেরফের হতেই পারে। আজ আমরা আপনাদের সাথে পাঁচ বেড রুম বিশিষ্ট একটি বাড়ির পরিকল্পনা শেয়ার করে নিলাম। এই ডিজাইনটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী যদি কোন ডিজাইন জানতে চান সেটাও আমাদের সঙ্গে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। যথাসম্ভব আপনাদের সাহায্য করার চেষ্টা করা হবে।

Back to top button