খুব কম খরচে তৈরি করুন ৪ রুমের দোতলা সুন্দর বাড়ি! রইলো খরচের পরিমাণ সহ বাড়ির লেটেস্ট ডিজাইন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাড়ি তৈরি করা সাধারণ মানুষের কাছে একটা স্বপ্নের মত। পরিবার পরিজন এবং সন্তান নিয়ে নিজেদের বাড়িতে সুখে বসবাস করতে কে না চায়! তবে নানান ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হয়ে আজকাল অনেকেই বাড়ি তৈরি করতে গিয়ে বাধাপ্রাপ্ত হন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাড়ির পরিকল্পনা সঠিক না হওয়ার কারণে প্রচুর অসুবিধার সৃষ্টি হয়ে থাকে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের সাথে একটি পারফেক্ট দোতলা বাড়ির পরিকল্পনা শেয়ার করে নেব। যারা সম্প্রতি বাড়ি তৈরি করার কথা চিন্তা-ভাবনা করছেন তারা অবশ্যই আমাদের এই প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত পড়ে নিন।

আজ আমরা যে ডিজাইনটি শেয়ার করব সেখানে প্রবেশ পথের শুরুতেই রাখা হয়েছে একটি ছোট্ট লম্বাটে প্যাসেজের মত বারান্দা। এখানে খুব সহজেই আপনারা সাইকেল অথবা বাইক রাখতে পারবেন। একটু খোলামেলা জায়গা হিসেবেও বসার জন্য এটা তৈরি করতে পারেন। বারান্দা থেকে খুব সহজেই ড্রয়িং রুমে যাওয়ার প্রবেশ পথ তৈরি করতে পারবেন। আর বারান্দার ঠিক ডানদিকে অর্থাৎ ড্রয়িং রুমের কোনাকুনি থাকবে প্রথম মাস্টার বেডরুম।

ড্রয়িং রুম আর সিঁড়ির ঘর আলাদা করে করার প্রয়োজন নেই। একসাথে যদি করে নেন কোনো রকম দেওয়াল না তুলে সে ক্ষেত্রে কিন্তু খরচ একটু কম পড়বে। প্রথম যে মাস্টার বেডরুমটির কথা বললাম সেটা গেস্ট রুম হিসেবেও কাজে লাগাতে পারেন। সেক্ষেত্রে অবশ্যই একটা অ্যাটাচ টয়লেট তৈরি করে নিতে ভুলবেন না। এবার ড্রয়িংরুমে ঠিক সোজাসুজি আপনারা পরপর রান্নাঘর আর কমন টয়লেট তৈরি করে নিতে পারেন। ঠিক পিছনের অংশে পরপর দুটো বেডরুম খুব সহজেই তৈরি হয়ে যাবে। গ্রাউন্ড ফ্লোরের আলোচনা শেষ হলো।

দোতলার ক্ষেত্রে ঠিক একই রকম প্ল্যানে সামনে একটা ব্যালকানি এবং মাস্টার বেডরুম তৈরি করে নিতে পারেন। এখানে আরো একটা অতিরিক্ত বাথরুম দুটো রুমের সাথে অ্যাটাচ করে নিলে কিন্তু আপনাদেরই সুবিধা হবে। দোতলায় যদি ড্রয়িং রুম রাখতে না চান সেক্ষেত্রে একটা স্টাডি রুম এবং একটা পুজোর ঘর তৈরি করতে পারেন।। তাহলে দুটো ফ্লোর মিলিয়ে আপনাদের ছটা বেডরুম, পাঁচটা বাথরুম, একটি ড্রয়িং কাম ডাইনিং এরিয়া, একটি স্টাডি রুম, একটি পুজোর ঘর এবং দুটি বারান্দা সহজেই তৈরি হয়ে যাবে ‌। খোলামেলা পরিবেশের মধ্যে পারফেক্ট ভাবে এই বাড়িটি তৈরি করতে গেলে অন্তত দু কাঠা জায়গার প্রয়োজন হবে আপনার।

সমস্ত দিক বিবেচনা করে একটা স্পষ্ট হিসেব নিয়ে বলা যায় জমি ছাড়া এই বাড়িটি তৈরি করতে গেলে প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ লক্ষ টাকার কাছাকাছি খরচ পড়বে। যদি মার্বেল ফিনিশিং এবং অন্যান্য কিছু ইন্টেরিয়র ডেকোরেশনের সাহায্য আপনারা নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে এই খরচ কিন্তু আরো অনেকটাই বেড়ে যাবে। তবে যে কোন বড় ফ্যামিলিও খুব সহজেই এই পরিকল্পনার মধ্যে বাড়ি তৈরি করে বসবাস করতে পারবেন।

আপনারা চাইলে দুটো ফ্লোরে আলাদা করে কিচেন তৈরি করে নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে নিচতলাটা ভাড়া দিয়ে অর্থ উপার্জন করতেও খুব একটা অসুবিধা হবে না। তবে সেক্ষেত্রে সিঁড়ির ঘরের পরিকল্পনা সামান্য আলাদা করতে হবে। আজকের এই বিশেষ ডিজাইনটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই একটি কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

ভিডিওটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুনhttps://youtu.be/SMzBS3FrzmU

Back to top button