একবার খেলে আটকাতে পারবেন না জিভের জল! খুব সহজেই এইভাবে বানিয়ে ফেলুন দারুণ টেস্টি বেগুন মালাই পাতুরী

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমিষের বিভিন্ন রেসিপি খেয়ে কমবেশি আপনারা অনেকেই হয়তো রসনা তৃপ্তি ঘটিয়েছেন। তবে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব বেগুন মালাই পাতুরি রেসিপি যেটা সম্পূর্ণ নিরামিষ পদ্ধতিতে প্রস্তুত করা হয়েছে। মাত্র কয়েক মিনিটের পরিশ্রমে এই রেসিপি তৈরি হয়ে যাবে এবং খেতেও হবে দারুন টেস্টি। আপনাদের মধ্যে যারা একটু নতুন ধরনের রান্না ট্রাই করতে চান অবশ্যই আজকের এই বেগুন মালাই পাতুরি তৈরি করে দেখতে পারেন। খেতে কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

আজকের রেসিপি তৈরি করার জন্য আপনাদের পরিমাণ মতন বেগুন নিয়ে সেটাকে লম্বালম্বি চার পিস করে কেটে নিতে হবে। এবার হলুদ আর লবণ মাখিয়ে বেগুন গুলোকে রেখে দিন। তারপর গ্যাসে একটা কড়াই বসিয়ে পরিমাণ মতন তেল যোগ করে চটপট বেগুন গুলোকে ভেজে ফেলুন। বেগুন ভাজার সময়ে অবশ্যই বেগুনের বাইরের দিকটা করাইতে আগে দেবেন। বেগুন ভাজা হয়ে গেলে এটাকে একটা অন্য পাত্রের মধ্যে তুলে রেখে দিন। তারপর কড়াইতে সামান্য পরিমাণে তেল যোগ করে দুটো শুকনো লঙ্কা, তেজপাতা, হিং ও পাঁচফোড়ন দিয়ে দিন।

যখন নাড়াচাড়া করে মসলা থেকে সুন্দর গন্ধ বেরোতে শুরু করবে তখন আদা বাটা যোগ করবেন। রান্নার এই পর্যায়ে হালকা করে চিনি যোগ করবেন কারণ নিরামিষ রেসিপিতে চিনির স্বাদ খুবই ভালো লাগে। সামান্য লবণ এবং দুই টুকরো টমেটো যোগ করে দিন। গ্যাসের আঁচ কমিয়ে এর মধ্যে টমেটোর পিউরি,২ চামচ হলুদ আর জিরে দিয়ে দিন। বেশ কিছুক্ষণ সময় নিয়ে আপনাদের মসলা কষিয়ে নিতে হবে। তরকারিতে সুন্দর রং আনতে চাইলে আপনারা কাশ্মিরী লাল লঙ্কার গুঁড়োও রান্নার এই পর্যায়ে দিয়ে দিতে পারেন।

মসলা মোটামুটি ভাজা হয়ে গেলে কড়াইতে টক দই,কাজু বাদাম এবং চারমগজের পেস্ট দিয়ে দেবেন। সামান্য পরিমাণ পোস্ত যোগ করে নাড়াচাড়া করতে থাকুন।রান্নাতে সুন্দর গন্ধ আর ফ্লেভার আনতে চাইলে কিছুটা কসুরি মেথিও দিতে পারেন। সবশেষে অল্প অল্প করে জল যোগ করে নাড়াচাড়া করতে থাকুন। এবার একটুও নাড়াচাড়া করে ভেজে রাখা বেগুনগুলো এর মধ্যে দিয়ে কিছুক্ষণ ভালোভাবে মিশিয়ে নেবেন। ব্যাস তাহলেই অসাধারণ টেস্টি এই বেগুন মালাই পাতুরি রেসিপি তৈরি হয়ে গেল। খেতে কেমন লাগলো অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button