শিকার করতে এসে আচমকা হামলা চিতার! বাঁচতে গিয়ে পাল্টা শিং দিয়ে পিঠ ফুঁড়ে দিল মহিষ, চরম ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইন্টারনেট সহজলভ্যতার এই যুগে একে অন্যের সঙ্গে ভার্চুয়ালি যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম সোশ্যাল মিডিয়া তথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। ফেসবুক, মেসেঞ্জার, হোয়াটস অ্যাপ, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি এখন নিত্যদিনের ব্যবহৃত এপ্লিকেশন। সাধারণভাবে কোনরকম অর্থ খরচ ছাড়াই প্লে স্টোর থেকে এই সমস্ত অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে একাউন্ট রেজিস্টার করে ব্যবহার করা যেতে পারে।

তাই শিশু থেকে বয়স্ক সকলেই এখন এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহারকারী হিসেবে চলে এসেছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জীবনাচারণকে যতটা সহজলভ্য ও আরামপ্রদ করে দিয়েছে, তার চেয়ে অনেকে ঝুঁকির মুখোমুখিও করছে। বিভিন্ন সাইবার ক্রাইমের সংখ্যা যার ফলস্বরূপ প্রচুর পরিমাণে বেড়ে গিয়েছে। আবার তার সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিভিন্ন মানসিক অবসাদ আর অশান্তির পরিমাণ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ পরিচয় করতে গিয়ে প্রায় সময় অনেকে অনেক ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করে থাকেন যা একেবারেই উচিত নয়।।বন্ধু ভেবে যার কাছে আপনার সব ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করেছেন, আপনি তার কাছে দুর্বল কিনা সেই মুহূর্তে? এই দুর্বলতাকে পুঁজি করে যদি আপনার মানহানি কিংবা অর্থহানি করে থাকে, তবে আপনার সামাজিক পরিচিতির জায়গাটা কোথায় গিয়ে ঠেকবে, ভেবেছেন একবার?

আসলে আমরা কেউই এই ব্যাপারটি নিয়ে বিশেষ ভাবি না। তবে সময় হয়তো আমাদের এই ব্যাপারগুলি ভাবতে সাহায্য করে। এবার আসা যাক আমাদের আজকের প্রতিবেদনের কথায়। আজ আমরা নেট মাধ্যমে ভাইরাল একটি অদ্ভুত ভিডিও নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করব যা হয়তো কম বেশি সকলকে অবাক করে রেখে দেবে।

জঙ্গলের ভেতরে যে এই ধরনের কোন ঘটনা ক্যামেরাবন্দি হতে পারে সেটাই সবথেকে আশ্চর্যের ব্যাপার। ভাইরাল এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একদল মহিষ খোলা মাঠের উপরে খাবার খাচ্ছিল। আচমকাই সেখানে একটি চিতা বাঘ চলে আসে এবং মহিষকে আক্রমণ করতে যায়। তবে মহিষমূলে পালিয়ে না গিয়ে চিতা বাঘটিকেই ঘুরে আক্রমণ করে এবং তাড়া করে।

এমন ঘটনা যে ঘটবে তা ভাবতেও পারেনি বাঘটি। শেষ পর্যন্ত সে দৌড়ে জঙ্গলে ঢুকে যেতে বাধ্য হয়। তবে এই সামান্য কয়েক মুহূর্তের দৃশ্য বেশ উপভোগ করেছেন দর্শকেরা। বাস্তুতন্ত্রের নিয়ম অনুযায়ী সাধারণত মাংসাশী প্রাণীর তৃণভোজী প্রাণীকে খেয়ে থাকে। কিন্তু পরিস্থিতি যে তৃণভোজী প্রাণীদেরও সংগ্রামের মাধ্যমে লড়াই করা শিখিয়ে দিতে পারে সেটা হয়তো ধারণার মধ্যে ছিল না কারুর।

মাত্র ছয় দিন আগে ANIMAL MOMENT নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। ১.৫ মিলিয়ন দর্শক এখনো পর্যন্ত ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন এবং পছন্দ করেছেন। বহু মানুষ ভিডিওটি তে নানান ধরনের কমেন্ট করেছেন। এই বিষয়ে আপনাদের কি মতামত তা আমাদের সাথে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। ভালো লাগলে অবশ্যই একটি লাইক আর শেয়ার করে দিতে ভুলবেন না।

Back to top button