মাছ ধরতে গিয়ে আচমকা উঠে এলো কুমির! তারপর ঘটলো ভয়ানক ঘটনা, দেখুন সেই হাড়হিম করা ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ার দরুন প্রতিনিয়ত আমাদের সামনে এমন কিছু জিনিস সামনে আসে যা হয়তো কখনোই খালি চোখে দেখা সম্ভব নয়।। শুরু থেকেই ইন্টারনেট জগত কিন্তু মানুষের মনের অনেকটা জায়গা দখল করে রেখেছে এই কারণে। এমনকি অনেক বিশেষজ্ঞদের মতে গণমাধ্যমের থেকেও আজকাল শক্তিশালী হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ার যেমন ভালো দিক রয়েছে ঠিক তেমন খারাপ দিকও কিন্তু রয়েছে। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় সাইবার অপরাধের সংখ্যা অনেকটাই কিন্তু বেড়ে গিয়েছে। তবে তাতে যদিও মানুষের মধ্যে বিশেষ কোনো প্রভাব নেই কারণ মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি এতটাই আসক্ত হয়ে পড়েছে যে কোন রকম ভাবেই সেটাকে ছেড়ে আসা সম্ভব নয়।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছুদিন আগেই এটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে যা দেখে রীতিমতো অবাক সকলে। ভাইরাল এই ভিডিওতে আমরা দেখতে পাচ্ছি এক সুন্দরী যুবতীকে যিনি সুন্দরবন অঞ্চলে বসবাস করে থাকেন। কমবেশি আপনারা সকলেই জানেন এই সুন্দরবন অঞ্চল কতটা ভয়ংকর। স্থানীয় মানুষদের কিন্তু এখানে জীবিকা নির্বাহের জন্য প্রাণ হাতে করে চলতে হয়।।

কিন্তু সমাজ আর প্রকৃতির সাথে সংগ্রাম করাটাই হচ্ছে নিয়ম। ভাইরাল এই ভিডিওতে দেখা যায় এই যুবতী সুন্দরবনের এক নদীতে মাছ ধরার জন্য উপস্থিত হন এবং জালের সাহায্যে একের পর এক মাছ ধরতে থাকেন। বেশ কিছুক্ষণ এভাবে চলার পর আচমকায় তিনি সেখানে একটি কুমির দেখতে পান।

তবে তারপরেও সাহসিকতার সাথে সেখানে দাঁড়িয়ে জালে মাছ ধরে তিনি তাড়াতাড়ি বেরিয়ে আসেন। ভিডিওর শেষে দর্শকদের উদ্দেশ্যে জানান যে এই অঞ্চলের বাসিন্দাদের কতটা প্রাণ হাতে করে বেরোতে হয় এবং এরকম ভাবে কাজ করতে হয়।। অনেকেই এই মহিলার ভিডিওটিকে দারুন পছন্দ করেছেন এবং তার সাহসিকতার জন্য তাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। এখনো পর্যন্ত প্রায় 60000 এর বেশি মানুষ এই ভিডিওটি দেখেছেন এবং পছন্দ করেছেন। যদি প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকে আপনারাও কিন্তু অবশ্যই এই ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না।

Back to top button