আপনার কাছে কি রয়েছে এই ১ টাকার কয়েন? তবে আপনিও হতে পারেন প্রচুর টাকার মালিক, কিভাবে? জানুন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিগত বেশ কিছু সময় ধরেই বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে অনেক জায়গায় পুরনো কয়েন বিক্রি করার সুযোগ এসেছে। কয়েন বিক্রি করে অনেকেই কিন্তু হাজার থেকে শুরু করে লক্ষ টাকারও বেশি উপার্জন করার সুবিধা পেয়েছেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনেও আমরা আপনাদের সাথে এরকম একটি কয়েন বিক্রির সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি।

প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন এবং দেখে নিন আপনাদের কাছে এই ধরনের পুরনো কয়েন আছে কিনা! যদি থাকে সেক্ষেত্রে আপনিও হতে পারেন বিপুল অর্থের মালিক। চলুন জেনে নেওয়া যাক। আজ আমরা আলোচনা করব ১৯৯৪ সালে ছাপানো স্টেনলেস স্টিলের প্রথম এক টাকার কয়েন নিয়ে।

এক টাকার কয়েন সম্পর্কে বলতে গেলে আমাদের দুই ধরনের কয়েনের কথা বলতে হয় যার মধ্যে প্রথম হচ্ছে ১৯৯০ সালে ছাপানো বি আর আম্বেদকরের এক টাকার কয়েন । যার মধ্যে কপার রয়েছে ৭৫ শতাংশ এবং নিকেল রয়েছে ২৫ শতাংশ। এই কয়েনের মধ্যে কোন রকমের লোহার ভাগ নেই। এবার আমরা বলবো ১৯৯৪ সালে ভারত সরকারের ছাপানো স্টেনলেস স্টিলের এক টাকার কয়েনের কথা।

এই কয়েনের মধ্যে আয়রন রয়েছে ৮৩ শতাংশ এবং ক্রোমিয়াম আছে ১৭ শতাংশ। যেহেতু এই কয়েন এর মধ্যে ক্রোমিয়ম রয়েছে তাই এতে সহজে মরচে ধরে না। এবার চলে আসা যাক কয়েন তৈরি হওয়ার ইতিহাসে। ১৯৯৩ সালের জাতিসংঘ কর্তৃক বিশ্বজুড়ে পরিবারের জীবনযাত্রার মান উন্নত করার জন্য 15ই মে আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস পালনের কথা ঘোষণা করা হয়। এর পিছনে কারণ ছিল একটি সমাজের বিকাশে পরিবারের গুরুত্বকে তুলে ধরা।

মূলত এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য হচ্ছে পারিবারিক ছোট বড় সকল সদস্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার মাধ্যমে পারস্পরিক সম্পর্ক অটুট রাখা। তার পরের বছর থেকে এই দিনটি বিভিন্ন পরিবারের আর্থসামাজিক সমস্যা গুলি কাটিয়ে ওঠার জন্য পালিত হচ্ছে। এর লক্ষ্য হল বিশ্বজুড়ে সমস্ত পরিবারের অবস্থার উন্নতি করা।

১৯৯৩ সালে জাতিসংঘ পরিবারের গুরুত্ব এবং বিশ্বের সমস্ত পরিবারের যেসব সমস্যা আছে সেগুলো কাটিয়ে ওঠার উপায় গুলি সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে ১৫ই মে আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস ঘোষণা করে। ১৯৯৪ সাল থেকে প্রতিবছর ইউএন UN ও ইউনিভার্সেল পিস ফেডারেশন দ্বারা আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস পালিত হয়ে আসছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এতে অংশীদারী হিসেবে কেউ ডাক টিকিট আবার কেউ কয়েন ছাপিয়েছিল।

তাই আমাদের দেশ ভারতবর্ষ ১৯৯৪ সালে এই আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস উপলক্ষে স্টেইনলেস স্টিলের এই এক টাকার কয়েনটি নিয়ে আসে। এই কয়েন ছাপানোর পিছনে একটাই কারণ ছিল যে সমাজের বিকাশে পরিবারের গুরুত্বকে তুলে ধরা। এই কয়েনটার একদিকে ইন্টারন্যাশনাল ইয়ার অফ দা ফ্যামিলির লোগো করা রয়েছে। যার নিচে দেখা যাচ্ছে একজন বাচ্চা হাত তুলে রয়েছে এবং তার উপরে মা বাবা এবং দাদু ঠাকুমা।

কয়েনটার উল্টোদিকে রয়েছে অশোক স্তম্ভ, দেশের নাম এবং টাকার অংক লেখা। ভারতের দুই জায়গা যথাক্রমে বোম্বে এবং নয়ডা থেকেই এই কয়েনটি ছাপানো হয়েছিল। বোম্বে থেকে ছাপানো এই কয়েনটির আজকের দিনে দাম 50 থেকে 100 টাকা। তবে পুরোটাই নির্ভর করবে কয়েনের বর্তমান অবস্থার উপর। নয়ডা মিনট থেকে ছাপানোর কয়েনটির দাম এখনকার দিনে রয়েছে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা।

Back to top button