ওষুধের খালি প্যাকেট কি ফেলে দেন? এবার থেকে এই কয়েকটি কাজে লাগান ওষুধের খালি প্যাকেট, কমে যাবে অর্ধেক খাটনি

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের প্রত্যেক বাড়িতেই এমন বহু অপ্রয়োজনীয় জিনিস রয়েছে যেগুলো সাধারণত আমরা ফেলে দিয়ে থাকি। তবে আপনাদের হয়তো কমবেশি কারোরই ধারণা নেই যে এই সমস্ত অপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলো ঠিক কতটা কাজে লাগতে পারে! আজ আমরা বলব ট্যাবলেটের খাপ বা খোসার কথা। সাধারণত ওষুধ খেয়ে নেবার পর এগুলো আমরা সকলেই ফেলে দিই। চলুন জেনে নেওয়া যাক এই সম্পর্কিত বিশেষ কয়েকটি টিপস।

১) প্রথমেই প্রয়োজন মতন কিছু ওষুধের খাপ নিয়ে সেটাকে ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে। তারপর চলে আসা যাক আমাদের প্রথম টিপস অর্থাৎ বোতল পরিষ্কার করার দিকে। নির্দিষ্ট সময় অন্তর বাড়িতে থাকা জলের বোতল সকলকেই পরিষ্কার করতে হয়। সেটি পরিষ্কার করার জন্য আপনারা প্রথমেই বোতলের মধ্যে নিয়ে নেবেন সামান্য পরিমাণে বেকিং সোডা আর ভিনেগার।

এবার এই ওষুধের খাপের টুকরো থেকে কিছু নিয়ে বোতলের মধ্যে দিয়ে দিন। বোতলের মধ্যে হালকা গরম জল দিয়ে নাড়াচাড়া করে রেখে দিন ৫ মিনিট সময় পর্যন্ত। তারপর ভালোভাবে এর ভেতরের আর বাইরের অংশ দ্রবণটা ফেলে দিয়ে ঘষে নিন। যেহেতু বোতলের ভেতরের অংশে কোন ভাবে আপনারা স্ক্রাবার বা হাত দিয়ে পরিষ্কার করতে পারবেন না তাই এই ওষুধের খাপগুলো সেখানে ব্রাশের কাজ করবে।

২) অনেক সময়ই রান্না করার সময় পাত্র পুড়ে গিয়ে থাকে। চট করে এই পোড়া দাগ উঠতে চায় না এবং দীর্ঘ সময় ধরে ঘষামাজা করতে হয়।। তবে সেই সমস্ত কিছু না করে যদি আপনার একটা ওষুধের খাবেন ধারের অংশটা নিয়ে পোড়া দাগে ঘষে দেন তাহলে কিন্তু সহজেই এটা উঠে যাবে। শেষে সাবান ব্যবহার করে ভালোভাবে ঘষে নিলেই কিন্তু দেখবেন এটা একদম পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।

৩) গ্যাসের সিলিন্ডার যদি টাইলস বা মার্বেলের তৈরি মেঝের উপর রাখা হয় সেক্ষেত্রে কিন্তু একটা জং পড়া দাগ এর উপর সৃষ্টি হয়ে যায়। জল দিয়ে মুছলেও এই দাগ চট করে যায় না। এই দাগ ওঠানোর জন্য আপনারা ব্যবহার করতে পারেন সামান্য পরিমাণে ব্লিচিং পাউডার। তার উপর সামান্য জল দিয়ে ওষুধের খাপ ব্যবহার করে ভালো করে স্ক্রাব করে নিন। মোটামুটি ৫ থেকে ১০ মিনিট স্ক্রাবিং এর কাজটা করলেই দেখবেন সমস্ত দাগ উঠে গিয়েছে।

৪) আধুনিক যুগে বেশিরভাগ মানুষ মসলা বাটার জন্য মিক্সার গ্রাইন্ডার ব্যবহার করে থাকেন। তবে এখনো অনেকে রয়েছেন যারা শিলনোড়া ছাড়া কিন্তু রান্নার কাজ করেন না। কিন্তু শিলনোড়া ধার করার লোক চট করে এখন আর পাওয়া যায় না। এই ধার করার কাজ করার জন্য আপনারা কিছুটা পরিমাণ ওষুধের খাপের টুকরো আর লবণ শীলের উপর রেখে ভালোভাবে বেটে নিতে পারেন। ৫ মিনিট সময় ধরে এই কাজটি করলেই কিন্তু দেখবেন শিল আগের মতন ধার হয়ে গিয়েছে। আসলে ওষুধের খাপের ধারালো অংশের কারণে এই ঘটনাটা ঘটে।

৫) বাড়িতে থাকা কাঁচি অনেক সময় ধার কমে গিয়ে থাকে। এটিকে ধার করার জন্যেও আপনারা ওষুধের খোসা ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমেই গ্যাস জ্বালিয়ে কাঁচি টাকে একটু গরম করে নেবেন তারপর সেটা দিয়ে ওষুধের খাপগুলো কেটে নেবেন। দেখবেন কাঁচি আবারো আগের ধার ফেরত পেয়ে গিয়েছে।

৬) অনেক রান্নাতেই আদা ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে আদার খোসা ছাড়ানো বেশ ঝামেলার কাজ। বাজারে যখন নতুন আদা ওঠে সেগুলোর খোসা কিন্তু খুব সহজে এই ওষুধের খাপ দিয়ে ছাড়ানো যেতে পারে। একটা যে কোন বড় ওষুধের খাপ নিয়ে আদার গায়ে বেশ কিছুক্ষণ ঘষতে থাকুন দেখবেন সমস্ত খোসা উঠে গিয়েছে।

Back to top button