মায়ের সাথে ঘুমিয়েছিল চারটি কুকুর ছানা! হঠাৎই দ্রুতবেগে ধেয়ে এলো বিষধর কোবরা, নিমেষেই ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে খুব সহজেই যে কোন জিনিস ভাইরাল হয়ে ওঠে অল্প সময়ের মধ্যে। আপনাদের অনেকের মনে হয়তো প্রশ্ন উঠতে পারে এই সোশ্যাল মিডিয়া আসলে ঠিক কি? সোশ্যাল মিডিয়া হল এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে বিভিন্ন এপ্লিকেশন ব্যবহার করে আপনারা খুব সহজেই দূরদূরান্তের মানুষের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন এবং নিজের একটি ভার্চুয়াল জগত সৃষ্টি করতে পারবেন।

এই যেমন ধরুন ফেসবুক, whatsapp, ইনস্টাগ্রাম, টুইটার প্রভৃতি। খুব সহজেই কিন্তু এই এপ্লিকেশন গুলোতে রেজিস্টার করে আপনারা নিজেদের নামের একাউন্ট খুলে নিতে পারেন। বিভিন্ন খবরাখবর থেকে শুরু করে ছবি ভিডিও সব কিছুই আপনারা এখানে পাবেন। আবার বিশ্বের যে কোন কোনায় থাকা মানুষের সাথে খুব সহজেই চ্যাটিং বা ফোনের মাধ্যমেও যোগাযোগ করতে পারবেন। অতএব বুঝেই গিয়েছেন যে এটি কি ধরনের প্লাটফর্ম! সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটি সকলেই কিন্তু এই নেট মাধ্যমের বাসিন্দা।

জীবজন্তু সংক্রান্ত যেকোনো ভিডিও এখানে খুব সহজেই ভাইরাল হয়ে ওঠে। তবে সব থেকে বেশি যে ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয় তা হল সাপের ভিডিও। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সাপের ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে তা দেখে রীতিমতন দুঃখ পেয়েছেন নেট নাগরিকরা। ভাইরাল এই ভিডিওর শুরুতেই আমরা দেখতে পাচ্ছি একটি কুকুরের মৃতদেহ। জানা যাচ্ছে কিং কোবরা সাপের আক্রমণের কারণে মারা গিয়েছে এই কুকুরটি।

জানা যাচ্ছে এটি উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামের ভিডিও এবং ওই কুকুরটি স্থানীয় বাসিন্দাদের পালিত হওয়ার কারণে তারা সকলেই বেশ মনমরা হয়ে পড়েছে। শেষ পর্যন্ত সাপটিকে উদ্ধার করার জন্য এক যুবককে খবর দেয় তারা। এই যুবকের নাম মুরলিওয়ালে হৌসলা। যারা সোশ্যাল মিডিয়া নিয়মিত ব্যবহার করেন তারা কমবেশি সকলেই এই যুবককে চিনবেন। এই যুবকটি যখন সাপকে উদ্ধার করতে আসেন তখন জানা যায় যে শুধুমাত্র ওই কুকুরটি নয় তার সদ্য জন্মানো চারটি বাচ্চাকেও বিষধর টি আক্রমণ করে মেরে ফেলেছে।। যদিও বাচ্চাগুলোকে সে খেতে পারেনি। ব্যাপারটি দেখার পর স্থানীয় বাসিন্দাদের সকলেই অত্যন্ত দুঃখ প্রকাশ করেন।

এরপর গ্রামের একটা কোণে থাকা খড়ের গাদা সরিয়ে টালির ফাঁক থেকে এই বিষধর কোবরা সাপটিকে উদ্ধার করা হয়। যদিও প্রথমে সাপটি তার হাতে আসছিল না, বেশ কয়েকবার পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তবে শেষ পর্যন্ত ওই লোকটি অত্যন্ত দক্ষতার সহকারে বিষধর টিকে উদ্ধার করে নিজের ব্যাগের মধ্যে ভরে নেয়।

জানিয়ে রাখি এই বিষধর কিং কোবরা সাপের বৈজ্ঞানিক নাম নাজা নাজা। এর ইন্ডিয়ান নাম হলো ইন্ডিয়ান কোবরা। এই সাপের বিষ এতটাই মারাত্মক যে যে কোন মানুষ বা পূর্ণবয়স্ক হাতি মাত্র কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই মারা যেতে পারে। তাই উদ্ধারকারী যুবক সকলকে কিন্তু সাবধান থাকতে বলেছেন। তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে।

মাত্র মাসখানেক আগে শেয়ার করা ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত প্রায় ১৭ মিলিয়ন মানুষ দেখে নিয়েছেন। ভিডিওটি পছন্দ করেছেন প্রায় ১ লক্ষ ৭০ হাজার মানুষ। কমেন্ট বক্সে এই উদ্ধারকারী যুবকের সকলেই কিন্তু প্রশংসা করেছেন। তিনি যেভাবে সাহসিকতার সঙ্গে বিষধর সাপটিকে উদ্ধার করে গ্রামবাসীদের প্রাণ বাঁচিয়েছেন সেটা নিঃসন্দেহে প্রশংসার যোগ্য। প্রতিবেদনটি পড়ার পরে ভালো লাগলে আপনারাও সঙ্গে থাকা ভিডিওটা দেখে নিতে পারেন।

Back to top button