কলকাতার একদম কাছেই দুর্দান্ত লোকেশনে জলের দামে পান জমি, না দেখলে পস্তাবেন পরে

নিজস্ব প্রতিবেদন: নিজেদের বসতবাটি তৈরি করার জন্য অথবা ব্যবসার কাজ শুরু করার জন্য প্রত্যেক মানুষেরই কিন্তু জমির প্রয়োজন হয়ে থাকে। তবে এই ঘনবসতির যুগে একটা পারফেক্ট জমি পাওয়াটা কিন্তু সোজা কথা নয়। ভালো লোকেশনের মধ্যে জমি পেলেও অনেক ক্ষেত্রে সেটা আমাদের হাতের বাজেটের বাইরে চলে যায়; অথবা হয়তো চারপাশের পরিবেশ আমাদের পছন্দ হয় না।

কিন্তু আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের এমন একটি জমির খোঁজ দিতে চলেছি যেখানে খুব সহজেই পছন্দের বাগান বাড়ি থেকে শুরু করে যে কোন প্রজেক্ট এর কাজ আপনারা শুরু করতে পারবেন। শহরের যান্ত্রিকতা থেকে একটু দূরে যারা নিরিবিলি পরিবেশে বসবাস করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য এই জমি কিন্তু একেবারেই আদর্শ। চলুন আর সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের অংশে গিয়ে জমিটির লোকেশন এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

আজকের এই জমিটি বারুইপুর জংশন রেলওয়ে স্টেশন থেকে মাত্র ১২ কিলোমিটার দূরত্বে কালাবারু নামক একটি জায়গায় অবস্থিত। এখান থেকে মাত্র ৬ কিলোমিটার এর দূরত্বে আপনারা গৌড়দহ রেলওয়ে স্টেশনের সুবিধাও খুব সহজেই উপভোগ করতে পারবেন।

তাছাড়া বাজার থেকে শুরু করে ব্যাংক, এটিএম এবং সংলগ্ন নার্সিংহোম সবকিছুই আপনারা এখানে পেয়ে যাচ্ছেন। যেহেতু এক কিলোমিটারের মধ্যে সমস্ত সুযোগ-সুবিধা রয়েছে তাই যোগাযোগ ব্যবস্থার দিক থেকে এটাকে একপ্রকার আদর্শ জমি বলা যেতে পারে। জমিটির খুব কাছেই আপনারা ঢালাই অর্থাৎ পিচ রাস্তা পেয়ে যাবেন। জল বা ইলেকট্রিসিটি সংক্রান্ত কোনো সমস্যাও কিন্তু ক্রেতাদের হবে না।

বাগান বাড়ি তৈরি করার জন্য সাধারণত মানুষ একটু নিরিবিলি পরিবেশ খোঁজেন। তাই এই জমি একেবারেই আদর্শ। আবার যদি কেউ কোনরকম ফার্মের কাজ যেমন পোল্ট্রি ফার্ম বা গোট ফার্মিং প্রভৃতি শুরু করতে চান সেটাও এখানে করতে পারেন। এখানে মোট ৯.৫ বিঘা/৩ একর জমি রয়েছে। যার প্রতি কাঠা দাম নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ২০ হাজার টাকা। আজকের দিনে এই ধরনের দামে জমি পাওয়া যাবে সেটা তো ভাবাই যায় না। যদি জমিটি পছন্দ হয় এবং আপনারা কেনার ব্যাপারে আগ্রহী থাকেন সেক্ষেত্রে নিচের দেওয়া নম্বরে দ্রুত যোগাযোগ করে নেওয়ার অনুরোধ রইল।
Contact :9775161614.

Back to top button