মধ্যবিত্তদের জন্য সুখবর! হলুদ ধাতুর দামে ঘটলো পতন, জানেন কতটা সস্তা হলো সোনা? জেনে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিগত সপ্তাহের শুরু থেকেই কিন্তু ক্রমাগত সোনার দামে উত্থানপতন লক্ষ্য করা যাচ্ছে ‌। চলতি সপ্তাহেও বেশ কয়েকবার উর্ধ্বমুখী হওয়ার পর বুধবার আবারো বাড়লো সোনার দাম। গতকাল রাজধানী কলকাতায় হলুদ ধাতুর এই মূল্য বৃদ্ধি দেখে রীতিমতন চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। বিয়ের মরসুম চলার কারণে এই সময়ে সোনার গয়নার চাহিদা থাকে সর্বাধিক। বহু মানুষ এই সময় নিজেদের সঞ্চিত অর্থ ব্যবহার করে সোনা ক্রয় করে থাকেন। তাই এহেন মূল্য বৃদ্ধিতে যে সাধারণ মানুষের কতটা সমস্যা হতে পারে তা হয়তো খুবই স্পষ্ট।

এমনিতেই করোনা আবহের পর থেকে মানুষের আর্থিক জোর অনেকটা কমে গিয়েছে। সেই পরিস্থিতিতে হলুদ ধাতুর এই ঊর্ধ্বমুখী দাম যেন আরো আগাম বিপদের জানান দিচ্ছে।এভাবে দাম বাড়তে থাকলে সাধারণ মানুষের পক্ষে আর সহজে সোনা কেনা সম্ভব হবে না বলেই মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। যার ফলে সোনার দোকানগুলির বিক্রিও কিন্তু অনেকটা কমে যেতে পারে বলে ধারণা। চলুন আর সময় নষ্ট না করে গতকাল বুধবার সোনার বাজার দর দেখে নেওয়া যাক ‌।

১) গতকাল বুধবার কলকাতায় ২৪ ক্যারাট পাকা সোনার ১০ গ্রামের দাম ১০০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে এর নতুন দাম ৫৪,৯৫০ টাকা। পাশাপাশি এদিন ২২ ক্যারাট গহনা সোনার ১০ গ্রামের দামও ১০০ টাকা বেড়েছে।৫২,১৫০ এখন এর বর্তমান দাম। করোনা আবাহে সোনার রেকর্ড মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছিল ৫৬, ২০০ টাকা। সাম্প্রতিক সোনার দাম এই রেকর্ড দরের থেকে মাত্র ৪,০৫০ টাকা কম রয়েছে। অন্যদিকে বুধবার ২২ ক্যারাট‌ হলমার্ক সোনার ১০ গ্রামের দাম‌ও ১০০ টাকা বেশি হয়ে দাঁড়িয়েছে ৫২,৯৫০ টাকা।

২) এবার আমরা বলব রুপোর কথা। আজকাল অনেকেই কিন্তু সোনার বিকল্প হিসেবে রুপোর তৈরি বিভিন্ন গহনা ট্রাই করে থাকেন। দৈনন্দিন অনেক ছোটখাটো জিনিস বানাতেও রুপোর ব্যবহার রয়েছে। বুধবার রুপোর দাম যেমন একদিকে কমেছে ঠিক আরো একদিকে বেড়েও গিয়েছে।

এদিন প্রতি কেজি রুপোর বাটের দাম ৪৫০ টাকা কমে গিয়ে দাঁড়িয়েছিল ৬৬,৭৫০টাকায়। খুচরো রুপো প্রতি কেজি ৪,০৫০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। আপাতত এর নতুন দাম ৬৬,৮৫০ টাকা। সুতরাং সব মিলিয়ে বলা যায় ক্রেতাদের কাছে কিন্তু এখন ভালো আর খারাপ দুটো খবরই রয়েছে। সোনার গয়না কিনতে গেলে একদিকে যেমন তারা বেশ ধাক্কার মুখোমুখি হবেন। ঠিক তেমনভাবেই রূপোর গয়না কিন্তু তাদের কিছুটা হলেও স্বস্তি দেবে। এই মূল্যবৃদ্ধির প্রসঙ্গে আপনাদের কি মতামত আমাদের সাথে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন। এই ধরনের আরো নানান তথ্য জানতে নজর রাখতে থাকুন আমাদের পোর্টালের পাতায়।

Back to top button