ছোট থেকে বড় সবার হবে দারুণ পছন্দ! একবার খুব সহজেই এইভাবে পালং শাক দিয়ে বানিয়ে দেখুন পালং পুরি

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকাল মানেই বাজারে রকমারি শাকসবজির সমাহার যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য পালং শাক। কমবেশি সকলেই কিন্তু এই পালং শাক খেতে অত্যন্ত পছন্দ করে থাকেন। এটি দিয়ে নানান ধরনের পদ তৈরি করা যেতে পারে। তবে সর্বদা একঘেয়ে তরকারি বা সাধারণ কোন রেসিপি কিন্তু সকলের ভালো লাগেনা।

তাই মুখের স্বাদের পরিবর্তন করার জন্য আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি পালং শাক দিয়ে তৈরি পালংপুরি বা লুচির রেসিপি। এটি একবার যদি আপনারা বানিয়ে খেতে পারেন তাহলে কিন্তু মন ভরে যাবে। বানানো খুবই সোজা এবং সময়ও খুব একটা লাগেনা। তাহলে দেরি না করে আমাদের আজকের এই রেসিপি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

পালং পুরি বা লুচি তৈরির পদ্ধতি:

১) রেসিপিটি তৈরি করার জন্য পরিমাণ মতন পালং শাক (২০০ গ্ৰাম) নিয়ে নিন এবং এর পাতাগুলোকে সংগ্রহ করুন। তারপর শাকগুলোকে একবার জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর গ্যাসে একটা করাইতে কিছুটা পরিমাণ জল আর লবণ দিয়ে তার মধ্যে পালং শাকগুলোকে দুই মিনিট ভাপিয়ে নিন। এর বেশি সময় কিন্তু রাখবেন না কারণ তাহলে শাকের রং নষ্ট হয়ে যাবে।

গ্যাস অফ করে এই পালং শাকটাকে একটা ছাকনির মধ্যে তুলে নিয়ে জল ঝরিয়ে ঠান্ডা করে ফেলুন। এবার একটা মিক্সিং জারের মধ্যে দুটো কাঁচা লঙ্কা, দুটুকরো আদা, সামান্য পরিমাণে ধনেপাতা আর জল দিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার যে পালং শাক ভাপিয়ে রেখেছিলেন সেটাকে কোনরকম জল ছাড়াই মিক্সিং জারের মধ্যে দিয়ে আরও একটা পেস্ট বানিয়ে নিন।

এবার একটা বোলের মধ্যে পুরি তৈরি করার জন্য ১৫০ গ্রাম আটা আর ১৫০ গ্রাম ময়দা নিয়ে নিন। আপনারা চাইলে কিন্তু যেকোনো এক রকম উপকরণ দিয়েও তৈরি করতে পারেন। এবার এই আটা আর ময়দার মিশ্রণের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো, সামান্য হলুদ গুঁড়ো, জিরের গুঁড়ো, একটু বেশি পরিমাণে ধনের গুঁড়ো, গরম মসলার গুঁড়ো, খুব সামান্য হীং এবং স্বাদমতো লবণ।

শুকনো উপকরণ গুলোকে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে এতে সামান্য মৌরি আর ক্রাশ করে নেওয়া জোয়ান দিয়ে দেবেন। এবার দুই চামচ তেল এবং আদা কাঁচালঙ্কা আর ধনেপাতা যে পেস্ট তৈরি করে রেখেছিলেন সেটা দিয়ে দিন। সবশেষে পালং শাকের পেস্ট থেকেও কিছুটা এর মধ্যে যোগ করুন। একবারের সব পালং শাকের পেস্ট দেবেন না, অল্প অল্প করে যোগ করবেন।

আটা এবং ময়দা মাখার জন্য কোনরকম জলের ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। পালং শাকের এই পেস্ট দিয়ে কিন্তু আপনারা মাখার কাজটি করবেন। সুন্দরভাবে ডো তৈরি হয়ে গেলে তার উপরের অংশে একটু তেল লাগিয়ে দিন। পাত্রটিকে ঢাকা দিয়ে দশ মিনিট পর্যন্ত ডো রেস্টে রেখে দিতে হবে। নির্দিষ্ট সময় পরে আরো একবার এটাকে মথে নিন।

তারপর আপনাদের পুরি তৈরির জন্য লেচি কেটে নিতে হবে। তারপর ধীরে ধীরে যেভাবে লুচি বেলা হয় তেমনভাবেই বেলে, কড়াইতে তেল গরম করে এক এক করে ভেজে নেবেন। ব্যাস তাহলেই তৈরি হয়ে গেল পালংপুরি বা লুচির এই অসাধারণ রেসিপি। যেকোনো চাটনির বা তরকারির সাথে আপনারা এটা পরিবেশন করতে পারেন।

Back to top button