বাড়ির ছাদে বা উঠোনে এই সহজ গোপন ট্রিকসে করুন বিনস চাষ, সারাবছর পাবেন দুর্দান্ত ফলন

নিজস্ব প্রতিবেদন: উন্নত ফলনশীল বীজের সাহায্যে সারা বছর ধরেই কিন্তু বিনসের চাষ করা সম্ভব। গ্রীষ্মকালে সেমি শেডের মধ্যে এবং শীতকালে রোদের মধ্যেই সহজে এই চাষ শুরু করা যেতে পারে। আপনিও কি বাড়িতে অতি যত্নে এবং কম খরচের মধ্যে বিনস চাষ করতে চান! তাহলে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র আপনাদের জন্য। আপনি কিন্তু খুব সহজেই লোকাল নার্সারী থেকে চারা কিনে এই গাছ প্রতিস্থাপন করতে পারেন। আবার বাড়িতে অতি সহজে বীজ থেকেও এই গাছ তৈরি করা যেতে পারে। চলুন স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি জেনে নেওয়া যাক।

বিনসের বীজগুলোকে আপনাদের প্রথমে কিছুক্ষণ জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এই জলের মধ্যে কয়েক ফোটা হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড মিশিয়ে দেবেন। এর ফলে বীজের অঙ্কুরোদগমের সুযোগ অনেকটাই বেড়ে যাবে। মোটামুটি ১৫ মিনিট থেকে আধঘন্টা ভিজিয়ে রাখলেই যথেষ্ট। নির্ধারিত সময় পর আপনাকে বীজগুলো প্রতিস্থাপন করে দিতে হবে। যেকোনো ফলের বড় ক্রেট নিয়ে তার মধ্যে মিডিয়া তৈরি করে নিতে পারেন। তার আগে অবশ্যই ক্রেটের মধ্যে থাকা ছিদ্রগুলো ব্ল্যাক টেপ ব্যবহার করে আটকে নিতে ভুলবেন না। যাতে অতিরিক্ত জল বেরিয়ে যায় সেজন্য একটু জায়গা ফাঁকাও রেখে দেবেন।

বিনস চাষ করার জন্য সেরা মাটি আপনাকে তৈরি করতে হবে। এর জন্য আপনাদের দুই ভাগ সাধারণ মাটি,১ ভাগ কম্পোস্ট জাতীয় সার, সামান্য পরিমাণে নিমখোল এবং কিছুটা হাড়ের গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে হবে। অনুখাদ্য হিসেবে টপ প্রতি দুই থেকে তিন চামচ ফিউরিড নিয়ে নেবেন। আপনারা চাইলে মাটির পরিবর্তে কোকোপিট এর সাথেও বিভিন্ন ধরনের সার মিশিয়ে সবজি গাছ লাগাতে পারেন। মনে রাখবেন মাটি তৈরীর অন্ততপক্ষে 10 থেকে 15 দিন বাদে যদি গাছ প্রতিস্থাপন করা হয় তাহলে সবথেকে সেরা ফলাফল পাবেন।

তাই বিনস চাষ করার ইচ্ছে থাকলে বেশ কিছুদিন আগেই মাটি প্রস্তুত করে রাখা শুরু করে দেবেন। যেহেতু বিনস লতানো গাছ তাই বীজ প্রতিস্থাপন করার পরে আপনাকে অবশ্যই গ্রেট থেকে খুঁটি বরাবর মাচার মতন তৈরি করে দিতে হবে। লাইননের দড়ি দিয়ে মাচা করলে দুই থেকে তিন সিজন অনায়াসে চাষ করতে পারবেন। বীজ প্রতিস্থাপন করার পর একটা মাটির লেয়ার চাপা দিয়ে আপনাদের অবশ্যই পরিমাণমতন জল আর সময় অনুযায়ী ফার্টিলাইজার দিতে হবে। ব্যাস অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই কিন্তু আপনারা বাম্পার ফলন পেতে শুরু করবেন। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে একটা লাইক, কমেন্ট করে দিতে অবশ্যই ভুলবেন না।

Back to top button