বাড়ির ছাদে বা উঠোনে বিনা খরচে এইভাবে করুন টমেটো চাষ, অল্পদিনেই পাবেন দুর্দান্ত ফলন

নিজস্ব প্রতিবেদন: টমেটো খেতে অনেকেই ভালোবাসেন। বহু সুস্বাদু রেসিপি যেমন তরকারি-ডাল-চাটনি— নানা পদেই টমেটো ব্যবহার হয়। আসলে এই সবজিটির খাদ্য গুণের তালিকা কিন্তু কম নয়। এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে যা আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। পাশাপাশি আছে ভিটামিন কে১। যা আমাদের শরীরের রক্ত সঞ্চালন ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় এবং রক্তকে কোনভাবেই জমাট বাঁধতে দেয় না। সবথেকে বড় ব্যাপার রান্না করলে এই সবজিটির পুষ্টিগুণ বেড়ে যায়।

লাইসোপিন নামক একটি উপাদান রয়েছে এর মধ্যে যা ক্যান্সারের আশঙ্কা অনেকটাই কমিয়ে দেয় আমাদের শরীরে। আজকাল তাই অনেকেই বাড়িতে এবং বাণিজ্যিক পদ্ধতিতে টমেটো চাষ শুরু করেছেন। সাধারণত হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে টমেটো চাষ করলে এর আকার খুব বড় হয়ে থাকে। ফলস্বরূপ কৃষকদেরও অনেকটাই লাভ হয়। আজ আমরা এই অসাধারণ গুনসম্পন্ন সবজিটির হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে চাষ নিয়েই আপনাদের সাথে আলোচনা করতে চলেছি। একটু চেষ্টা করলে আপনারাও কিন্তু এটা শুরু করতে পারেন।

আপনার বাড়িতে খোলামেলা বড় জায়গা না থাকলে কৌটো ব্যবহার করেও কিন্তু এই টমেটো চাষ করা যেতে পারে।তার জন্য আপনাদের প্রথমেই কয়েকটি খালি প্লাস্টিকের কৌটো নিয়ে নিতে হবে। এই কৌটোগুলোর উপরের অংশ কেটে ছিদ্র করে নেবেন। কয়েকটি টমেটো নিয়ে স্লাইস করে কেটে ফেলুন। মাটির মধ্যে এই স্লাইস গুলোকে রেখে উপরে আরো কিছুটা মাটি চাপা দিয়ে একটা লেয়ার বা স্তর সৃষ্টি করে ফেলুন।

ব্যাস এবারে এগুলোকে অল্প ছায়াযুক্ত স্থানে রেখে দিতে হবে। লক্ষ্য করে দেখবেন মোটামুটি দশ দিনের মধ্যেই কিন্তু এগুলো থেকে চারা বেরিয়ে আসছে। প্রথমে যে কৌটোগুলো নিয়েছিলেন তাতে এবার মাটি ভরে নিন। তারপর টমেটো স্লাইস থেকে বেরোনো চারাগুলোকে এই মাটিতে সঠিকভাবে প্রতিস্থাপন করুন। চারা রোপন করা হয়ে গেলে ওপর থেকে আরেকটা প্লাস্টিকের ছোট বোতলে করে ফলের টুকরো ভরে দিন। এটাকে একটা বড় কৌটার মধ্যে রেখে দেবেন। পরে সার হিসেবে কাজে লাগানো যেতে পারবে।

যেকোনো খোলা জায়গাতেই হুক বা পেরেকে বড়ো প্লাস্টিকের কৌটো দড়ির সাহায্যে ঝুলিয়ে রাখবেন আর নিয়মিত প্রয়োজন অনুযায়ী জল দিতে অবশ্যই ভুলবেন না। যখন চারাগুলির মোটামুটি ১৫ দিন বয়স হবে তখন থেকে প্রতি সপ্তাহে এতে শুকনো কলার খোসা গুঁড়ো করে প্রয়োগ করবেন। দেখবেন ২০ দিনের মধ্যেই গাছগুলি আরো বৃদ্ধি পেতে শুরু করবে।ঝোলানো দড়ি বেয়ে যখন গাছগুলি উঠতে শুরু করবে তখন এর নিচের দিকের কয়েকটি পাতা কেটে নেবেন।

৩০ দিন হতে না হতে কিন্তু গাছে ফুল চলে আসবে। এই সময় আবারও নিচের দিকের পাতা ও উপরের ডগা আপনারা ছেঁটে নিতে হবে। মোটামুটি ৫৫ থেকে ৬০ দিনের মধ্যেই গাছে ভালোভাবে ফলন ধরে যাবে এবং টমেটো ব্যবহারের উপযুক্ত হয়ে যাবে। কিন্তু সঠিকভাবে যত্ন বা কোন স্টেপ মিস করে গেলে কিন্তু আপনাদের এই হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে চাষ সম্পন্ন হবে না। সুতরাং অত্যন্ত যত্ন সহকারে সম্পূর্ণ পদ্ধতিটি আপনারা করে ফলাফল জানাবেন। উল্লেখ্য এই পদ্ধতিতে চাষ করে কিন্তু আপনারা বিশাল বড় অংকের অর্থ সহজেই উপার্জন করতে পারেন। বিশ্বের বহু অংশের কৃষকরা এই চাষে ব্যাপক লাভবান হয়েছেন।।

Back to top button