ভিড়ের মাঝে জাদু খেলা দেখাতে গিয়ে ঘটলো বিপত্তি! মারা গেলো দুধের শিশুটি, ভিডিও দেখে চোখে জল দর্শকদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যার সাহায্যে কমবেশি আমরা এমন অনেক ঘটনাবলী ভাইরাল হতে দেখি যা হয়তো খালি চোখে আমাদের কখনোই দৃষ্টি আকর্ষণ করে না। আগেকার দিনে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করতে হলে আমাদেরকে কম্পিউটার বা ল্যাপটপের উপর নির্ভরশীল থাকতে হতো। সব থেকে বড় ব্যাপার তখনকার সময় ইন্টারনেট এতটা সহজলভ্য ছিল না।

কিন্তু এখন স্মার্টফোনের কারণে আর বিভিন্ন টেলিকম কোম্পানিগুলির দারুন ইন্টারনেট অফারের কারণে সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের রীতিমতন হাতের মুঠোয় বন্দী হয়ে গিয়েছে। শিশু থেকে বয়স্ক সকলেই কিন্তু এখন এই নেট দুনিয়ার বাসিন্দা হয়ে পড়েছেন। ঘুম থেকে ওঠা থেকে শুরু করে ঘুমোতে যাওয়ার সময় পর্যন্ত যেন সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ঝলক চোখ না রাখলে মানুষের চলে না। অবসর সময়ে মানুষের বিনোদনের ক্ষেত্রেও কিন্তু এই সোশ্যাল মিডিয়া একেবারে মুখ্য ভূমিকা পালন করছে।

নাচ, গান থেকে শুরু করে কবিতা আবৃতি প্রভৃতির নানান ধরনের জিনিস আমরা এই নেট মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি।। সম্প্রতি কিছুদিন আগেই ইন্টারনেট জগতে একটি খুদে শিশুর ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছিল যেখানে দেখা যাচ্ছিল একটি হলুদ রঙের শাড়ি পড়ে দুর্দান্ত বলিউড গানের সঙ্গে নাচ করছে সে। খুব বড়জোর শিশুটির বয়স হবে চার কি পাঁচ বছর।

এইটুকু বাচ্চার মধ্যেও যে এমন ধরনের প্রতিভা থাকতে পারে তা হয়তো ইন্টারনেট দুনিয়া না থাকলে আমরা কোনমতেই জানতে পারতাম না।আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে এমনই একটি প্রতিভার ভিডিও শেয়ার করে নিতে চলেছি। এই ভিডিওর সাথে ও যুক্ত রয়েছে এক খুদে বাচ্চা। ভাইরাল এই ভিডিওটি ঠিক কোন জায়গার সেই ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। তবে চার সপ্তাহ আগে শেয়ার করা এই ভিডিওটা এখনো পর্যন্ত ৬ লক্ষ ৭৭ হাজার মানুষ দেখে নিয়েছেন।

এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে গ্রামের একটি খোলা রাস্তার মধ্যে এক ব্যক্তি এবং তার সঙ্গে থাকা একটা বাচ্চা ছেলে ম্যাজিক দেখাচ্ছে। ব্যক্তিটি তার সঙ্গে থাকা বাচ্চা ছেলেটিকে একটি জালের মধ্যে বন্দী করে ফেলে এবং সেটাকে একটা কাপড় দিয়ে ঢেকে ফেলে। এরপর কিছু জাদু করে তারপর আশেপাশে থাকা বাচ্চাদের ডেকে এনে কাপড়ে হাত দিয়ে দেখতে বলে সেখানে কোন বাচ্চা আছে কিনা!

তারা জানায় কাপড়ের মধ্যে জালে কোন বাচ্চা নেই। এরপর ওই ব্যক্তি কাপড় সরিয়ে জাল বের করে আনেন এবং উপস্থিত সকলকে দেখান যে জালে তিনি শিশুটিকে আটকে রেখেছিলেন সেখানে সে নেই।। এভাবে বেশ কিছুক্ষণ চলার পর খেলা শেষে তিনি যখন শিশুটিকে বের করে আনেন তখন শিশুটি সম্পূর্ণ নিস্তেজ হয়ে পড়েছে। কয়েক মুহূর্তের জন্য দেখে মনে হয় শিশুটি মারা গিয়েছে। যদিও সেরকম কোনো ঘটনা ঘটে নি। আসলে খেলা চলাকালীন কোন কারণে শিশুটি অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিল।

এরপর ওই ব্যাক্তি উপস্থিত সকলের কাছে ম্যাজিক দেখার পারিশ্রমিক স্বরূপ টাকা দাবি করতে থাকেন। দর্শকদের মধ্যে একজন তাকে কুড়ি টাকা দিলে বাকি সকলের কাছেও ওই ব্যক্তি টাকার দাবি করে। কিন্তু সকলেই দাঁড়িয়ে তা দেখতে থাকে কোনরকম টাকা দেয় না। এমতাবস্থায় ওই ব্যক্তি নিজের এবং সেই বাচ্চা ছেলেটির কষ্ট তুলে ধরেন এবং উপস্থিত সকলের কাছে টাকার জন্য বলেন। বেশ কিছুক্ষণ ওই ব্যক্তির কথা শুনে শেষ পর্যন্ত দর্শকদের মধ্যে কিছু জন তাকে টাকা দেওয়ার জন্য অগ্রসর হন।

ভাইরাল ভিডিওতে ওই ব্যক্তি এবং ছোট্ট বাচ্চা ছেলেটি যে ম্যাজিক দেখিয়েছে তা সত্যিই দারুণ ব্যাপার। নেট নাগরিকদের মধ্যে অনেকেই এই ভিডিওটি ব্যাপক পছন্দ করেছেন এবং নিজেদের ছোটবেলার ম্যাজিক দেখার অভিজ্ঞতা কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিয়েছেন। হাতে সময় থাকলে প্রতিবেদনটি পড়ার পর অবশ্যই আপনারাও এই মজাদার ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না।।

Back to top button