নতুন বছরে আপনি অল্প ইনভেস্টেই হতে পারেন লাখপতি! শুধু জেনে নিন এই ৫টি গোপন ব্যবসার আইডিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদন: ব্যবসা হল এমন একটি মাধ্যম যার সাহায্যে খুব সহজেই স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব। তবে যারা মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষ রয়েছেন তারা কখনোই কিন্তু অতিরিক্ত বেশি বিনিয়োগে কাজ করতে পারেন না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই স্বল্প পুঁজিতে শুরু কিছু বাড়িতে বসেই করা যাবে এমন ব্যবসার আইডিয়া শেয়ার করে নেব। যদি আপনাদের আইডিয়াগুলো কাজে লাগে তাহলে কিন্তু অবশ্যই শেয়ার করে নিতে হবে।

১) হোলসেল জিনিস অনলাইনে বিক্রির ব্যবসা:

যারা একেবারে বাড়িতে বসেই অল্প পুঁজি ব্যবহার করে ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন তারা অবশ্যই এটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। এই পদ্ধতিতে খুব সামান্য অর্থ ব্যয় করে আপনারা কিন্তু সহজেই যে কোন দৈনন্দিন ব্যবহার্য পাইকারী জিনিস অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন।। ফেসবুক কিংবা instagram post অথবা লাইভ এর সাহায্যে এই সমস্ত পণ্যগুলো আপনারা বিক্রি করতে পারেন। গ্রাহকদের মাল পাঠানোর ক্ষেত্রে আপনারা অবশ্যই প্যাকেজিংয়ের উপর নজর দেবেন না হলে কিন্তু সমস্যা হতে পারে। কারণ আপনার প্যাকেজিং যত ভালো হবে আপনার বিক্রিও কিন্তু ততটাই ভালো হবে।

২) হ্যান্ডমেড জিনিস বিক্রির ব্যবসা:

দেশ থেকে শুরু করে বিদেশে অনেকেই কিন্তু উপার্জনের জন্য হ্যান্ড মেড জিনিস কে বেছে নিয়েছেন। ঘর সাজানো থেকে শুরু করে নানান ধরনের সামগ্রী হাতে তৈরি করে খুব সহজেই প্যাকেজিংয়ের মাধ্যমে বাজারে বিক্রি করা যেতে পারে। যেহেতু আপনারা এই ব্যবসা বাড়ি বসে করতে চাইছেন তাই অবশ্যই অনলাইন প্লাটফর্মের সাহায্য নিয়ে নেবেন। দেখবেন এই ধরনের জিনিস কিন্তু অনলাইন প্লাটফর্মে খুব বেশি বিক্রিও হয়ে থাকে।

৩)প্রিন্ট অন ডিমান্ডের ব্যবসা:
এই ব্যবসাটি হল কাস্টমাইজ প্রোডাক্ট এর উপর তৈরি ব্যবসা। নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী যে কোন জিনিস যেমন টি-শার্ট থেকে শুরু করে চাদর অথবা কাপ, ফোন কভার অথবা বিভিন্ন জিনিসের উপর কিন্তু আপনারা সহজেই যে কোন ছবি বা ডিজাইন প্রিন্ট করিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। বাড়িতে বসেই অনলাইন প্লাটফর্ম এর মাধ্যমে অর্ডার নিয়ে আপনারা এগুলো প্যাকেজিং করে মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দিতে পারেন।। তবে এর জন্য আপনাদের মেশিন আর প্রিন্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রয়োজন হবে। যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

৪) দৈনন্দিন ব্যবহার্য কিছু রিসেল জিনিসের ব্যবসা:

আপনারা কিন্তু বিভিন্ন রিসেল জিনিস অর্থাৎ যেগুলো আগে ব্যবহার করা হয়ে গেছে এবং পরবর্তীতে কেউ কিনতে চাইছে সেগুলো নিয়েও ব্যবসা করতে পারেন। এর মধ্যে নানান ধরনের জামা কাপড় থেকে শুরু করে আসবাবপত্র অথবা গয়নাগাটি সবকিছুই থাকতে পারে। সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে এটা কিন্তু একটা অত্যন্ত জনপ্রিয় ব্যবসা।

৫) পেট সিটিং এর ব্যবসা:
বাড়িতে বসেই আপনারা এই ব্যবসাটাও খুব সহজে বিশেষ কোনো রকমের পুঁজি ছাড়াই শুরু করতে পারবেন। বাড়িতে বহু মানুষ রয়েছেন যারা কুকুর অথবা বিড়াল জাতীয় প্রাণী পুষতে খুব পছন্দ করে থাকেন। কিন্তু যখন মানুষ বাইরে কোথাও ঘুরতে বা কাজে যায় সেক্ষেত্রে এই প্রাণীগুলোকে রাখার কোন জায়গা আলাদাভাবে থাকে না। আপনারা নিজের বাড়ির এক অংশে খুব সহজেই স্পেস তৈরি করে এই পেট সিটিং এর কাজ করতে পারেন। ঘন্টা প্রতি আপনারা পোষ্য গুলির খেয়াল রাখার জন্য একটা নির্দিষ্ট অংকের অর্থ চার্জ করতে পারেন।।

Back to top button