শীতের সিজনে খুব সহজেই এইভাবে একবার বানিয়ে দেখুন দুর্দান্ত স্বাদের কাকড়া পিঠা, খেলে স্বাদ লেগে থাকবে বহুদিন পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকাল মানেই কিন্তু পিঠেপুলির সিজন। এই সময় কম বেশি অনেক বাড়িতেই প্রতিনিয়ত পিঠে রান্না করা হয়ে থাকে। আজ আমরা ওড়িশার একটি বিশেষ পিঠের রেসিপি আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব। এই রেসিপিটির নাম হল কাকড়া পিঠা।এটি ওড়িশার প্রতিটি বাড়িতে প্রস্তুত করা হয় এবং এটি ভগবান জগন্নাথকে প্রসাদ হিসাবে দেওয়া হয়। এই রেসিপিটি বিশেষভাবে সুজি, নারকেল এবং চিনি দিয়ে তৈরি। এটার সবচেয়ে ভালো ব্যাপার হল এটা যে কেউ তৈরি করতে পারে। মানে এটা মাত্র সামান্য জিনিস দিয়ে তৈরি, এটা তৈরি করতে অনেক কিছুর প্রয়োজন হয় না।

কি কি লাগবে?

১) সুজি ৫০০ গ্রাম
২) দেশি ঘি
৩) মৌরি ২০ গ্রাম
৪) চিনি ২০০ গ্রাম
৫) লবণ ১/২ চা চামচ
৬)জল
৭)চিনি ১০০ গ্রাম
৮) কাজু ৫০ গ্রাম
৯) কিশমিশ ৫০ গ্রাম
১০)বাদাম ২৫ গ্রাম
১১) গোলমরিচ এক চা চামচ গুঁড়ো
১২) কর্পূর এক চিমটি
১৪) এলাচ ১/২ চা চামচ গুঁড়ো
১৫ )তেল

কিভাবে তৈরি করবেন?..

গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে প্রথমেই কিছুটা পরিমাণে জল দিয়ে দেবেন। তারপর এরমধ্যে আধা চা চামচ লবণ, ২ চা চামচ ঘি, ২০ গ্রাম মৌরি, ২০০ গ্রাম চিনি যোগ করে দিন। জল যখন কিছুটা ফুটে আসবে এর মধ্যে সুজি দিয়ে দিতে হবে। একবারে সমস্ত সুজি দেবেন না ধীরে ধীরে যোগ করার কাজটি করবেন যাতে দলা না পাকিয়ে যায়। যখন সূজি অনেকটা পুডিং এর মতন হয়ে যাবে তখন গ্যাস থেকে নামিয়ে নেবেন।

এবার স্টাফিং তৈরি করতে গেলে একটি ফ্রাইং প্যান নিয়ে তাতে ঘি দিন এবং গরম করুন। তারপর ১০০ গ্রাম চিনি দিন। চিনি ভালোভাবে মেশান এবং চিনি পুরোপুরি গলে গেলে, এতে গ্রেট করা নারকেল দিন। নারকেল যোগ করার পরে ভালোভাবে মেশান। চিনি ও নারকেল মিশিয়ে আঠার মতো হয়ে যাবে, তারপর ড্রাই ফ্রুটস কুচি দিন। মিনিট পাঁচেক সময় গ্যাসের ফ্লেম কমিয়ে ভেজে নিতে হবে।

এলাচের গুঁড়ো, কর্পূর এবং কুচানো গোলমরিচ দিয়ে মিশিয়ে নিন। তারপর ৪ থেকে ৫ মিনিট ভাজুন। এবার সুজি বের করে হাত দিয়ে ম্যাশ করে নিন এবং যেভাবে রুটি বানানো হয় সেভাবে ময়দাড় মত তৈরি করুন। সুজি মাখানোর সময় হাতে কিছুটা ঘি মাখুন যাতে সুজি হাতে লেগে না যায়। এবার এই সুজি থেকে আপনাকে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিতে হবে। এই বল গুলোকে হালকা চেপে একটা বাটির মতন তৈরি করে নিন তাতে এর মধ্যে স্টাফিং দিয়ে দেওয়া যেতে পারে।

স্টাফিং ভর্তি করার পর সুজি সব দিক থেকে ভালো করে বন্ধ করে দিন। যাতে তেলে ভাজার সময় কাকড়া খুলে না যায়। এরপর গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে পরিমাণ মতন তেল দিয়ে দিন।প্যান অনুযায়ী ৫ থেকে ৬টি বা যতটা সম্ভব কাকড়া দিয়ে একপাশে ২-৩ মিনিট ভাজুন। দুই দিক ভালোভাবে ভাজা হয়ে গেলেই এই বিশেষ পিঠের রেসিপি প্রস্তুত হয়ে যাবে।

Back to top button