বর্তমান বাজারে ক্রমশ বাড়ছে চাহিদা! খুবই অল্প পুঁজিতে একবার শুরু করুন এই দুর্দান্ত ব্যবসা, মাসে হবে প্রচুর ইনকাম

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশের বর্তমান আর্থিক পরিস্থিতির উপর নজর রেখে আজকাল কিন্তু অনেকেই ব্যবসা শুরু করার কথা চিন্তাভাবনা করছেন। তবে ঠিক কোন ধরনের পণ্যের ব্যবসা করলে সেটা সহজেই লাভজনক হতে পারে এই সম্পর্কে বহু নতুন ব্যবসায়ীদের কোন স্পষ্ট ধারণা নেই।। ফলস্বরূপ কিছুটা হলেও তারা এই ক্ষেত্রে ব্যর্থ হতে শুরু করেছেন। আসলে ব্যবসা সবসময় এমন শুরু করা উচিত যার বাজার চাহিদা প্রচুর এবং যেটি ছাড়া কখনোই দৈনন্দিন জীবন চলবেনা।

যতই আপনি বিকল্প ব্যবসা ট্রাই করুন না কেন তার যদি বাজার চাহিদা না থাকে বা মানুষের মধ্যে সেই ব্যবসা থেকে উৎপাদিত পণ্য কেনার আগ্রহ না থাকে তাহলে কিন্তু কখনোই সেই ব্যবসা চলবে না। আজ আমরা আপনাদের সাথে এমন একটি ব্যবসা সম্পর্কে আলোচনা করব বর্তমান সময়ের বিভিন্ন বাড়ি থেকে শুরু করে দোকান সব জায়গাতেই যার চাহিদা রয়েছে। আমাদের অনুপস্থিতিতে বাড়িঘর অথবা দোকান সবকিছুতেই কিন্তু একটা সিকিউরিটির প্রয়োজন হয়ে থাকে।

তার জন্য যে সব সময় একজন মানুষকেই সেই কাজ করতে হবে এমন কোন ব্যাপার নেই। বিশেষ করে একেবারে যারা সাধারন মানুষ রয়েছেন তাদের পক্ষে তো এটা একদমই সম্ভব নয়। তবে আপনারা চাইলে একটা ওয়ানটাইম ইনভেস্টমেন্ট করে খুব সহজেই নিজেদের দোকান অথবা বাড়ি সুরক্ষিত করে নিতে পারেন। এই সিকিউরিটি সিস্টেম নিয়েই হবে আমাদের আজকের ব্যবসা।

শাটার এবং সিকিউরিটির ব্যবসা:

নিশ্চয়ই আপনারা প্রথমবার এই ব্যবসাটি সম্পর্কে শুনেছেন। এই ব্যবসার মাধ্যমে আপনারা চার ধরনের শাটারের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সিকিউরিটি ডিভাইস নিয়ে খুব সহজেই নিজেদের ব্যবসা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন।। মানুষের অনুপস্থিতিতে কিভাবে তার দোকান অথবা বাড়ি এই সমস্ত সিকিউরিটি ডিভাইস ব্যবহার করে সুরক্ষিত রাখা যায় তা নিয়ে আমরা প্রতিবেদনের পরবর্তী অংশ আলোচনা করব।

তার আগে বলে রাখি এই ব্যবসা শুরু করার জন্য মোটামুটি হাতে ১০ হাজার টাকা থাকলেই হবে। আপনারা সহজেই কোম্পানির কাছ থেকে ডিলারসিপ নিয়ে এই সমস্ত পণ্যগুলো বাজারে সেল করতে পারেন। আবার চাইলে সমস্ত কিছুর সঠিক প্রশিক্ষণ নিয়ে এগুলোর একটা ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটও কিন্তু আপনারা তৈরি করে নিতে পারেন। তবে একেবারে তারা মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষ রয়েছেন তাদের পক্ষে কিন্তু ডিলারশিপ নিয়েই ব্যবসার কাজ শুরু করাটা বুদ্ধিমানের হবে।

অনেকেই ব্যবসা শুরুর দিকে বড় বিনিয়োগ করতে চান না। মনে করা হয়ে থাকে এতে ঝুঁকি অনেকটাই বেড়ে যায়। আসুন এবার কিভাবে এই শাটার ডিভাইস সিকিউরিটি সিস্টেম হিসেবে কাজ করে সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক। প্রথমেই যে শাটার ডিভাইসটি দেখাবো সেটা যখন দোকানের সাথে অ্যাক্টিভেট হয়ে যাবে তখন কিন্তু একটা বিপ করে সাউন্ড আসবে। যখনই শাটার মালিক ব্যতীত অন্য কেউ পরবর্তীতে খোলার চেষ্টা করবেন এই ডিভাইসটির কারণে কিন্তু সেটা জানা যাবে। তবে আপনারা চাইলে এই ডিভাইসটি আরো উন্নতভাবে নিজেদের দোকান অথবা বাড়িতে ব্যবহার করতে পারেন।

GSM SHUTTER হলে এখানে আপনারা একটা সিম লাগিয়ে নিতে পারবেন। সহজেই এতে আপনারা কোন অসুবিধা হলে কল অথবা মেসেজ পেয়ে যাবেন তাও আবার পাঁচটা আলাদা আলাদা নাম্বারে।Multi shutter হলে আপনারা মূল ডিভাইসটির সাথে বেশ কয়েকটা attachment পেয়ে যাবেন। যে সমস্ত দোকানে একসাথে বেশ কিছু শাটার থাকে তার মধ্যে লাগিয়ে দেবেন। তাহলে দোকানের মূল জায়গার সাথে বাদবাকি শাটার গুলো কিন্তু এটা কভার করে দেবে।

এর সাথে কিন্তু আপনারা আলাদা আলাদা পাঁচটা সেন্সর যেমন ডোর সেন্সর, উইন্ডো সেন্সার প্রভৃতি ব্যবহার করতে পারবেন ।Shutter with PIR MOTION হচ্ছে এই ক্ষেত্রে একটি আরও ডিভাইস। এটি যদি কোন দোকানে ব্যবহার করেন সে ক্ষেত্রে কল মেসেজের পাশাপাশি আপনারা কিন্তু একটা বড়সড় সাইরেন পেয়ে যাবেন দোকানে অন্য কোন ব্যক্তি প্রবেশ করলে।

এছাড়াও আপনারা বিভিন্ন ধরনের সিকিউরিটি ডিভাইস নিয়ে কিন্তু খুব সহজেই কাজ করতে পারেন। তার জন্য কোথা থেকে পণ্য কিনবেন এবং কিভাবে এগুলো মার্কেটে বিক্রি করবেন সবকিছুই নির্দিষ্ট কোম্পানির কাছ থেকে জানতে পারবেন। চলুন তাহলে, এবার সময় নষ্ট না করে সেই কোম্পানির সম্পর্কে কিছু বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক। যাতে ব্যবসা শুরু করতে গিয়ে আপনাদের কোন অসুবিধা না হয়।

Safe & sound.
North durganagar,near power house.
Call or whatsapp: 9123025371.

Back to top button