অবিকল প্যাকেটের মতো তড়কা মশলা এবার খুব সহজেই এইভাবে বানিয়ে নিন বাড়িতেই, রইলো স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন: তড়কার বিভিন্ন রেসিপি পছন্দ করেন না এরকম মানুষ হয়তো খুব কমই রয়েছেন। নিরামিষ হোক বা আমি সেই প্রত্যেকটা রেসিপি কিন্তু মানুষ খেতে অত্যন্ত ভালোবাসেন। তবে এই তরকা তৈরি করার সময় যেটা সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ তা হল মসলা। লক্ষ্য করে দেখবেন এই জন্য দোকানের বানানো তড়কায় এক প্রকার সুন্দর স্বাদ পাওয়া যায়। কিন্তু বাড়িতে সেটা কখনোই হয়ে ওঠে না। আসলে পুরো ব্যাপারটাই হলো মসলার কেরামতি। তবে আর চিন্তার কোন কারণ নেই। এবার থেকে তড়কা বানানোর প্ল্যান থাকলে কয়েক মিনিট আগে বানিয়ে নিন প্যাকেট এর মতো তড়কা মশলা।

কি কি প্রয়োজন হবে?

১) এক ইঞ্চি দারচিনি
২) দুটো শুকনো লঙ্কা
৩) কাশ্মীরি লাল লঙ্কা একটা
৪) এক ইঞ্চি শুকনো আদা
৫) একটা বড় কালো এলাচ
৬) দুটো ছোট সবুজ এলাচ
৭) ১ চা চামচ গোটা ধনে
৮) ১/২ চামচ সাদা ও কালো গোটা গোলমরিচ
৯) ৫-৬ লবঙ্গ
১০) ১ চা চামচ গোটা জিরে
১১) ১/২ চামচ মেথি
১২) এক চামচ হলুদ
১৩) এক চামচ বিট নুন
১৪) ১/২ চামচ গার্লিক পাউডার
১৫) ১ চামচ অনিয়ন পাউডার
১৬) ১/২ চামচ আমচুর পাউডার

কিভাবে এটি তৈরি করবেন?

গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে তার মধ্যে এক ইঞ্চি দারচিনি, দুটো শুকনো লঙ্কা, কাশ্মীরি লাল লঙ্কা একটা, এক ইঞ্চি শুকনো আদা, একটা বড় কালো এলাচ, দুটো ছোট সবুজ এলাচ, ১ চা চামচ গোটা ধনে, ১/২ চামচ সাদা ও কালো গোটা গোলমরিচ, ৫-৬ লবঙ্গ, ১ চা চামচ গোটা জিরে, ১/২ চামচ মেথি দিয়ে দিন। এবার মিডিয়াম ফ্লেমে এটাকে শুকনো খোলায় কিছুক্ষণ ফ্রাই করতে হবে। মসলা সুন্দর গন্ধ বেরোতে শুরু করলেই বুঝবেন ড্রাই রোস্ট হয়ে গিয়েছে। এবার মসলাগুলোকে ভালোভাবে ঠান্ডা করে নিন এবং তারপর গ্রাইন্ডারে নিয়ে মিহি করে পাউডার তৈরি করবেন।

মসলার এই পাউডারের সাথে এক চামচ হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে নেবেন। হলুদ মেশানোর আগে কিন্তু আপনাকে অবশ্যই এটা কেও একটু রোস্ট করে নিতে হবে। তারপর এই মিশ্রণের মধ্যে এক এক করে এক চামচ বিট নুন, ১/২ চামচ গার্লিক পাউডার, ১ চামচ অনিয়ন পাউডার, ১/২ চামচ আমচুর পাউডার যোগ করে ফেলুন। ভালোভাবে উপকরণগুলো যেন একে অপরের সাথে মিশে যায়। তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে তড়কা মসলা। কাঁচের বয়ানে ভরে আপনারা এটাকে সংরক্ষণ করতে পারেন এবং প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারেন।

Back to top button