প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা চলে গেছেন প্রায় একমাস আগে! এই প্রথমবার সেই নিয়ে মুখ খুললেন সব্যসাচী, যা বললেন শুনে হবেন অবাক!

নিজস্ব প্রতিবেদন: টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির একজন অত্যন্ত পরিচিত মুখ ছিলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। বেশ কিছু সিরিয়ালে তার অভিনয় দর্শকদের অত্যন্ত নজর কেড়েছিল। তবে অভিনয়ের থেকে বেশি নিজের ব্যক্তিগত জীবনের সংগ্রামকে কেন্দ্র করে সকলের আলোচ্য বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছিলেন এই অভিনেত্রী। পরপর দুবার ক্যান্সারের মতো মারণ রোগের আক্রমণ এবং সেখান থেকে বেঁচে আসার লড়াই নিঃসন্দেহে যে কোন মানুষকেই অবাক করতে বাধ্য করবে তাতে সন্দেহ নেই।

কিন্তু গত পয়লা নভেম্বরের ব্রেন স্টোক ঐন্দ্রিলাকে আর ফিনিক্স পাখি করতে পারল না ‌। আচমকাই যেন কোথায় সবকিছু শেষ হয়ে গেল ‌।২০ নভেম্বর ঐন্দ্রিলা শর্মার মৃত্যুর খবর আসার পরে আজ প্রায় এক মাস কেটে গিয়েছে। এখনো পর্যন্ত কিন্তু বাড়ির ছোট মেয়ের মৃত্যুর শোক কাটিয়ে উঠতে পারেনি শর্মা পরিবার। ঐন্দ্রিলার এই লড়াই তে প্রথম থেকেই তিনি পাশে পেয়েছিলেন নিজের বাবা-মা দিদি সহ প্রেমিক সব্যসাচীকে। যতবারই তিনি ভেঙ্গে পড়েছেন একেবারে নিজের মানুষের মতন সব্যসাচী তাকে সান্তনা দিয়েছেন।

হাজারো ব্যস্ততার মাঝেও ঐন্দ্রিলা শর্মার জন্য সব্যসাচী চৌধুরীর জীবনে এক আলাদাই জায়গা ছিল। সব থেকে কাছের মানুষের মৃত্যু শোক তাই এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেননি তিনি।ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর পর একাধিকবার সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ঐন্দ্রিলার মা, ভাগ করে নিয়েছেন নিজের দুঃখ ‌। কিন্তু সব্যসাচীকে কখনো সামনে আসতে দেখা যায়নি। বরং নিজেকে যেন বাইরের দুনিয়া থেকে সম্পূর্ণ গুটিয়ে নিয়েছেন এই অভিনেতা। প্রেমিকার মৃত্যু যেন তাকে একেবারেই নিস্তেজ করে তুলেছে। শেষবার তিনি ক্যামেরার সামনে এসেছিলেন ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর দিন সন্ধ্যেবেলায়। এরপর আচমকাই নিজের সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল ডিএক্টিভেট করে দেন তিনি।

বহুবার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের তরফ থেকে তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত এক নামী সংবাদমাধ্যমের ফোনে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন অভিনেতা। সেই প্রতিক্রিয়া শুনলে আপনারাও অবাক হয়ে যাবেন। কেমন আছে এই প্রশ্ন সব্যসাচীর উদ্দেশ্যে করা হলে তিনি জানিয়েছেন, “ঠিক আছি”। যদিও তার এই ভালো থাকার কথা বলার মধ্যে কোন দৃঢ়তা ছিল না। বোঝাই যাচ্ছে অন্যান্য সকলের মত বাস্তব পরিস্থিতির সাথে তিনি মানিয়ে চলার চেষ্টা চালিয়েই যাচ্ছেন। তবে এর শেষ কোথায় হবে কেউ জানে না।

সম্প্রতি কিছুদিন আগেই নিজের ফেসবুক থেকে ঐন্দ্রিলা আর সব্যসাচীর একটি ভিডিও শেয়ার করে নিয়েছিলেন অভিনেত্রীর মা শিখা শর্মা। ক্যাপশনে তিনি লিখেছিলেন ‘আমার ঐন্দ্রিলা আর সব্যসাচী’। যদিও এখন আর এই ক্যাপশনের কোন মূল্য নেই বলাই যায়। তবে ভিডিওটি দেখে খুব আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন নেট নাগরিকরা। ঐন্দ্রিলা শর্মাকে আপনাদের যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে প্রতিবেদনটি সকলের সাথে শেয়ার করে নিতে পারেন। আমরা চাইবো যেখানেই থাকুক ভালো থাকুন ঐন্দ্রিলা।

Back to top button