অবিকল দোকানের স্টাইলে বাড়িতেই খুব সহজ এই ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে নিন সিঙারা, এক কামড়েই বলবেন লা-জবাব!

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিকেল হলেই আমাদের সকলের মনটা কেমন যেন তেলেভাজা তেলেভাজা করে। এই তেলেভাজার মধ্যে সবার প্রথমেই যে খাবারটির কথা আমাদের মাথায় আসে তা হলো সিঙ্গারা। তবে আজকাল বহু মানুষ কিন্তু বাইরের দোকানে তৈরি খাবার খেতে চান না। তাই আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে একেবারে সহজ পদ্ধতিতে বাড়িতে সিঙ্গারা তৈরীর স্টেপ বাই স্টেপ উপায় শেয়ার করে নেব। চলুন তাহলে সময় নষ্ট না করে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

সিঙ্গারা বানানোর জন্য কি কি উপকরণ প্রয়োজন হবে?

১) ময়দা ২ কাপ
২) লবণ
৩) জোয়ান ১ চা চামচ
৪) দেশি ঘি বা পরিশোধিত তেল ৫০ গ্রাম
৫) সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ
৬) আলু ৪টি বড় সেদ্ধ এবং খোসা ছাড়ানো
৭) হিং এক চিমটি
৮) ধনেপাতা কুঁচি ১ চা চামচ
৯) মৌরি ১ চা চামচ
১০) গোলমরিচ ৮-১০ মিহি গুঁড়ো
১১) গ্রেট করা আদা ১ ইঞ্চি
১২) কাঁচা লঙ্কা ৩টি সূক্ষ্ম করে কাটা
১৩) মটরশুঁটি ৫০ গ্রাম
১৪)খোসা ছাড়ানো চিনাবাদাম ২ টেবিল চামচ
১৫) সবজি মসলা ১ চা চামচ
১৬) আমচুর পাউডার ১ চা চামচ
১৭) কসুরি মেথি ১ চা চামচ
১৮) লাল লঙ্কার গুঁড়ো ১ চা চামচ
১৯) হলুদ গুঁড়ো আধা চা চামচ
২০) কালো লবণ আধা চা চামচ
২১) ধনেপাতা সামান্য
২২) ভাজার জন্য তেল

কিভাবে তৈরি করবেন?

একটা পাত্রের মধ্যে দুই কাপ পরিমাণে ময়দা, হাফ চা চামচ লবণ এবং জোয়ান যোগ করে দিন। এবার পরিমাণ অনুযায়ী এর মধ্যে দেশী ঘি দিয়ে দেবেন। তারপর ময়দার সাথে খুব ভালো করে এই ঘি মিশিয়ে আপনাদের ময়ান দিয়ে মুষ্টি তৈরি করে নিতে হবে। এভাবে ময়দা মাখতে পারলে সিঙ্গারা খুব খাস্তা হবে। তারপর অল্প অল্প করে জল দিয়ে আপনাদের ময়দাটাকে মেখে নিতে হবে। মেখে নেওয়ার পরে কুড়ি মিনিট পর্যন্ত এইটাকে রেস্টে রেখে দেবেন। এই পর্যায়ে আপনাদের সিঙ্গারা তৈরীর জন্য স্টাফিং তৈরি করতে হবে।

গ্যাস অন করে একটা প্যান বসিয়ে দিন।এই প্যানে দুই টেবিল চামচ সরিষার তেল দিন তেল গরম হয়ে এলে এই তেলে এক চিমটি হিং, এক চামচ ধনেপাতা কুচি করে দিন। এক চা চামচ মৌরি এবং ৮-১০ গোলমরিচ গুঁড়ো করে দিন। এছাড়াও এক ইঞ্চি টুকরো আদা ও তিনটে কাঁচা লঙ্কা দিন। এই সব এক মিনিটের জন্য তেলে ভাজুন। মিনিটখানেক সময় পরে হাফ বাটি মটর যোগ করে আবারো কিছুক্ষণ রান্না করে নিতে হবে। তারপর এই মিশ্রণের মধ্যে আধা চা চামচ হলুদের গুঁড়ো, এক চা চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো দিয়ে দিন।

এক চা চামচ লবণ যোগ করুন এবং এক মিনিটের জন্য রান্না করুন এখন এতে ১/৪ কাপ ভাজা খোসা ছাড়ানো চিনাবাদাম দিন। আর একই সাথে চারটি বড় আলু সিদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট টুকরো করে কেটে এতে দিন। কিছুটা ম্যাশ করে আলু দিন। আর এক চা চামচ সবজি মসলা, এক চা চামচ শুকনো আমচুর পাউডার এবং এক চা চামচ কসুরি মেথি যোগ করুন। তারপর এর মধ্যে কিছুটা পরিমাণ কালো লবণ আর ধনেপাতা খুব ভালো করে কিছুক্ষণ মিশিয়ে নিতে থাকুন।মসলাগুলো আলুর সাথে খুব ভালোভাবে মিশে গেলেই কিন্তু স্টাফিং তৈরি হয়ে যাবে।

এবার আবারো আমাদের ফিরে আসতে হবে ময়দার কাছে। ময়দাটা হাত দিয়ে আরো একবার মথে নিয়ে এটা থেকে ছয়টা টুকরো করে নিন।একটি টুকরা নিন এবং ভাজেতে কিছু শুকনো ময়দা রাখুন এবং তা থেকে রুটি তৈরি করুন। এবার এই রুটিটি ছুরি দিয়ে মাঝখান থেকে কেটে নিন। একটি কাটা টুকরো হাতে নিয়ে একটি আলাদা পাত্রে কিছুটা জল নিয়ে ময়দা পেস্ট করুন এবং এই রুটির লম্বা কাটা অংশে জল লাগান।

আর এই কাটা অংশটি মাঝখান থেকে ভাঁজ করে সিঙ্গারার আকারে দিন। তারপর এর মধ্যে সিঙ্গারার জন্য যে পুর বানিয়ে রেখেছিলেন সেটাকে খুব সাবধানে ভরে সিঙ্গারাটাকে জল লাগিয়ে মুড়ে বন্ধ করে দিতে হবে।। তারপর গ্যাসে ঝটপট একটা প্যান বসিয়ে এর মধ্যে একটু বেশি করে তেল দিয়ে দিন। সিঙ্গারা কিন্তু একটু ডুবো তেলে ভাজলেই ভালোভাবে ভাজা হবে। তেল একটু গরম হয়ে গেলেই সিঙ্গারা গুলোকে এর মধ্যে দিয়ে দিন।।

প্রথমে কিছুক্ষণ একেবারে স্লো ফ্লেমে ভাজার কাজটি করবেন।১০ মিনিট পর তা আস্তে আস্তে উঠে আসতে শুরু করবে এবং তেলে ভাসতে শুরু করবে, এখন এইগুলোকে উল্টিয়ে ভাজতে হবে। দু দিক থেকে ভালোভাবে ভাজা হয়ে গেলেই কিন্তু সিঙ্গারা তৈরি হয়ে যাবে। ব্যাস আবার কি? গরম গরম চা অথবা চাটনির সাথে পরিবেশন করে ফেলুন।

Back to top button