যতই জেদি হলদে দাগ হোক না কেন! এই ঘরোয়া জিনিস দিয়ে পরিষ্কার করুন বাথরুমের টাইলস, হবে নতুনের মতো চকচকে

নিজস্ব প্রতিবেদন: রান্নাঘর বা বাথরুমের টাইলস কিন্তু কিছুদিন পরপর অপরিচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। সাধারণত আমরা এগুলি পরিষ্কার করার জন্য অনেক সময় ব্লিচিং পাউডার জাতীয় কিছু রাসায়নিক ব্যবহার করি। তবে এই ধরনের রাসায়নিক ব্যবহার করলে কিন্তু অনেক সময় টাইলসের উজ্জ্বলতা কমে যায় এবং দেখতে বাজে লাগে। তাই আপনারা কিন্তু সহজ কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করে অন্য কোন বিকল্প ব্যবস্থার সাহায্যে টাইলস পরিষ্কার করতে পারেন যাতে এর উজ্জ্বলতা বজায় থাকে এবং কোন সমস্যা না হয়।। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য আজকাল বেশিরভাগ বাড়িতেই কিন্তু রান্নাঘর এবং বাথরুমে টাইলস বসানো থাকে। যেহেতু সব থেকে বেশি নোংরা কাজ এই দুই জায়গা তে, তাই এই টাইলস গুলি অত্যন্ত অল্পদিনেই নোংরা হয়ে পড়ে।।

টাইলস পরিষ্কার করার জন্য একটি পাত্রের মধ্যে প্রথমেই আপনাদের কিছুটা পরিমান ডিটারজেন্ট পাউডার নিয়ে নিতে হবে। বাজারচলতি যে কোন ডিটারজেন্ট পাউডার আপনারা এই কাজে ব্যবহার করতে পারেন। এরপর এই ডিটারজেন্ট পাউডারের মধ্যে কিছুটা পরিমাণ বেকিং সোডা আর ভিনিগার মিশিয়ে নিতে হবে। যেকোনো দাগ ছোপ দূর করে কোন জিনিস পরিষ্কার করার কাজে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস হচ্ছে বেকিং সোডা। খুব সহজেই এটি কিন্তু অপরিচ্ছন্ন জিনিস পরিষ্কার করে তোলে। অন্যদিকে ভিনিগার কিন্তু আমাদের সকলের বাড়িতে থাকে না। আপনার কাছে ভিনিগার না থাকে সেক্ষেত্রে আপনারা বিকল্প হিসেবে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন, তাও সমানভাবে কার্যকরী।

এই তিনটি উপকরণ একত্র করে প্রথমে বেশ কিছুটা সময় পর্যন্ত ভিজিয়ে রাখতে হবে। এতে সামান্য হারপিক মিশিয়ে বাথরুমের সমস্ত টাইলসের ছড়িয়ে দিন। একই রকম ভাবে আপনাদের রান্না ঘরেও আপনারা টাইলস পরিষ্কার করে নিতে পারেন। যদি কোন জায়গাতে কঠিন দাগ থাকে তাহলে কিন্তু আপনারা সামান্য ব্রাশের সাথে সেই দাগগুলিকে ঘষে তুলে ফেলতে পারেন। এরকমভাবে খুব সহজ উপায়ের সাহায্যেই আপনারা নিজেদের বাড়ির টাইলস পরিষ্কার করে ফেলতে পারবেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই ধরনের ছোট ছোট টিপসগুলি জানা থাকলে কিন্তু অনেক বড় খরচ আমাদের বেঁচে যায়। তাই দৈনন্দিন জীবনে আপনারা বিভিন্ন হোম রেমেডি গুলি ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। এতে একদিকে যেমন আপনার অর্থ খরচ অনেকটাই সাশ্রয় হবে ঠিক তেমনভাবে কিন্তু বেঁচে যাবে আপনাদের সময়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি আপনার কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না। এই ধরনের আরো প্রতিবেদন সম্পর্কে জানতে অবশ্যই আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর চোখ রাখতে পারেন।

Back to top button