একবার খেলে বারবার বানানোর বাহানা খুঁজবেন! খুব সহজেই এইভাবে বানান দারুণ টেস্টি মুখশলা পিঠা

নিজস্ব প্রতিবেদন: পিঠে খেতে কম বেশি সকলেই অত্যন্ত ভালোবাসেন। চিরাচরিত ঐতিহ্যবাহী পুলিপিঠে বা পাটিসাপটার রেসিপি কমবেশি আমরা অনেকেই খেয়ে থাকি। তাই আজকের বিশেষ প্রতিবেদনে মুখের স্বাদের পরিবর্তনের জন্য আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি একটি মুখশলা পিঠের নতুন রেসিপি। খুব সহজেই আপনারা এটা তৈরি করে নিতে পারবেন বিনা কোন ঝামেলা ছাড়া। চলুন তাহলে আর দেরি না করে আজকের এই রেসিপিটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

রেসিপিটি তৈরি করার জন্য গ্যাসে একটি প্যান বসিয়ে তাতে মেজারমেন্ট কাপে করে পরিমাপ করে এক কাপ চালের গুড়ো দিন। মিডিয়াম টু লো ফ্লেমে অনবরত নাড়াচাড়া করে এই চালের গুঁড়ো আপনাদের ভেজে নিতে হবে । এবার গ্যাস অফ করে এটাকে অন্য পাত্রে তুলে রাখুন। অন্য একটা প্যানে কিছুটা পরিমাণ জল নিয়ে গ্যাসে বসিয়ে দিন। এর মধ্যে লবণ যোগ করুন এবং হালকা ফুটিয়ে নিন। যে কাপে করে জল নিয়েছিলেন সেটাতেই পরিমাপ করে আখের গুড় নিয়ে প্যানে দিন। হাইফ্লেমে আখের গুড় জলের সঙ্গে ভালোভাবে মিশিয়ে ফেলুন। এবার যে চালের গুঁড়ো ভেজে রেখেছিলেন সেটাকে এই মিশ্রণের মধ্যে যোগ করুন।

মনে রাখবেন যতটা চালের গুঁড়ো দেবেন তার থেকে একটু বেশি কিন্তু আপনাদের এখানে জল ব্যবহার করতে হবে । গ্যাসের ফ্লেম এই সময় একেবারে কমিয়ে রাখবেন। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে এটাকে একটা অন্য পাত্রে তুলে রাখুন। গ্যাসে অন্য একটি প্যান বসিয়ে তাতে মেজারমেন্ট কাপের এক কাপ পরিমাণ নারকেল কোরা দিয়ে দিন। যতটা নারকেল কোরা দিয়েছেন তার হাফ কাপ চিনি দেবেন। চিনি আর নারকেল কোরা ভালোভাবে মিশিয়ে ফেলুন। মিনিট দুয়েক সময় হালকা নাড়াচাড়া করলেই দেখবেন চিনি গলে গিয়েছে। তারপরেও বেশ কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে মিশ্রণটাকে একটু শুকনো প্রকৃতির করে ফেলুন।

অন্যদিকে যে চালের গুড়োর মিশ্রণটা তৈরি করে রেখেছিলেন সেটা হালকা গরম থাকা অবস্থাতেই একটা ডো তৈরি করে নিতে হবে। এটা থেকে ছোট ছোট বলের মতন লেচি আলাদা করে নিন। তারপর লেচিটাকে হালকা বেলে হাত দিয়ে চ্যাপ্টা করে এর মধ্যে নারকেলের পুর ভরে ফেলুন। ভালোভাবে ফোল্ড করে এগুলোকে প্যানে তেল দিয়ে ভেজে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে মুখশলা পিঠে। খেতে কেমন লাগলো এই অসাধারণ রেসিপি তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button