প্রতিদিন টবে থাকা গাছের গোড়ায় দিন কয়লা, ঘটবে দারুণ ম্যাজিক! অনেকেরই অজানা এই গোপন ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজকাল অনেকেই কিন্তু বাড়ির মধ্যে বাগানে বা ছাদের বিভিন্ন রকমের চাষ করতে পছন্দ করে থাকেন। কৃষি কাজের সাথে সরাসরি যুক্ত না হলেও এই চাষবাস কিন্তু মানুষের গাছপালার প্রতি ভালোবাসা দেখায়। তবে সঠিক পরিচর্যা না পেলে কিন্তু কোন ভাবেই কাজ বড় করে তোলা সম্ভব নয়।

এর আগে আমরা বিভিন্ন গাছের পরিচর্যা সংক্রান্ত অনেক ধরনের তথ্য আপনাদের সামনে নিয়ে হাজির হয়েছি। তবে আজকে একদমই ব্যতিক্রমী তথ্য আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব। মরিচ গাছের পাতা কুঁকড়ে যাওয়া থেকে শুরু করে,কুমড়ো গাছের ফল পচে যাওয়া অথবা লেবু গাছের পাতায় পোকার আক্রমণ সমস্ত সমস্যার সমাধান কিন্তু এই একটি প্রতিবেদনের মাধ্যমেই হয়ে যাবে।

এই পদ্ধতিতে প্রথমেই একটা বড় পাত্রের মধ্যে আপনাদের হাফ লিটার পরিমাণ সাধারণ তাপমাত্রার জল নিয়ে নিতে হবে। এরপর ঘর রং করার জন্য যে চুল থাকে তার এক চামচ এখানে জলে দিয়ে দেবেন। জলের সাথে চুন খুব ভালো করে মিশিয়ে নেওয়ার পরে এতে দুই চামচ ভিনেগার যোগ করুন।

ভিনেগার না থাকলে আপনারা লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। ভালোভাবে তিনটি উপকরণ মিশিয়ে নেওয়ার পরে আপনাদের ২০ থেকে ৩০ গ্রাম পরিমাণ কয়লা এই দ্রবণের মধ্যে যোগ করে দিন। কিছুক্ষণ এটাকে নাড়াচাড়া করতে থাকুন যাতে কয়লা সম্পূর্ণভাবে দ্রবণের মধ্যে মিশে যেতে পারে। ১০ ঘণ্টার জন্য এই মিশ্রণটাকে কোন ঠান্ডা জায়গায় সংরক্ষণ করুন। নির্ধারিত সময় পরে দেখবেন কয়লা অনেকটাই দ্রবণ শোষণ করে নেবে।

কিভাবে প্রয়োগ করবেন?

যে কোন গাছে এই দ্রবণ প্রয়োগ করার জন্য প্রথমেই মাটি একটু সামান্য আলগা করে নেবেন। তারপর শক্ত অর্থাৎ কয়লাযুক্ত অংশটাকে একটু ছড়িয়ে আর বাদবাকি জলীয় অংশটাকেও ঠিক একই রকম ভাবে শিকড় থেকে একটু দূরত্ব বজায় রেখে গোড়ায় ঢেলে দিতে হবে।। এই দ্রবণের ব্যবহারে কিন্তু গাছের ভারসাম্য সঠিক থাকবে আর ফলন ধরতে কোন সমস্যা হবে না। পাশাপাশি মরিচ গাছের পাতা কুকড়ে যাওয়ার সমস্যাও কিন্তু এই দ্রবণের প্রয়োগে দূর হয়ে যাবে।

এবার আমরা বলবো অন্য একটি পদ্ধতির কথা। এই পদ্ধতিতে একটা মগের মধ্যে ২৫০ মিলি জল নিয়ে নিন। এরপর খুব ভালোভাবে কিছুটা কয়লা নিয়ে গুঁড়ো করে নিন। তারপর এই কয়লা চূর্ণ দুই টেবিল চামচ পরিমাণ জলে যোগ করে ভালোভাবে মিশিয়ে ফেলুন। ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত আবারো এই দ্রবন টাকে ঠান্ডা জায়গায় সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। নির্ধারিত সময় পরে এটাকে একটি ছাঁকনির সাহায্যে ভালোভাবে ছেঁকে নিন এবং যে কোন সানসিল্ক শ্যাম্পু নিয়ে কিছুটা পরিমাণ দ্রবণে মিশিয়ে ফেলুন। ব্যাস ঠিক আগের পদ্ধতিতেই খুব সহজে আপনারা এটা গাছের গোড়ায় প্রয়োগ করতে পারেন। অথবা স্প্রে বোতল ব্যবহার করে গাছে স্প্রে করতে পারেন।

ভিডিওটি দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://youtu.be/CMKmSo_WN9o

Back to top button