ছোট্ট ছেলের কাঁধে চরে অবিকল মানুষের মতো কথা বলছে শালিক, দিচ্ছে প্রশ্নের উত্তরও! ভাইরাল ভিডিও দেখে হাঁ নেটিজেনরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন অনেক ভাইরাল ঘটনা যা দেখে আমরা রীতিমত অবাক হয়ে যাই। আসলে ঘরে বসেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ঘটনা সম্পর্কে জানা সোজা কথা নয়। তাই হয়তো এই মাধ্যম অনেক ক্ষেত্রেই আশ্চর্যের বিষয় হয়ে ওঠে। বিগত সময়গুলিতে তৃতীয় বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে একধাক্কায়। একটা সময় মানুষের মধ্যে এই সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার অত্যন্ত সীমাবদ্ধ ছিল। তবে স্মার্টফোনের সহজলভ্যতা মানুষকে যেন সোশ্যাল মিডিয়ার দাস করে তুলেছে। যদিও বিশেষজ্ঞরা বারংবার সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখেই ব্যবহার করার কথা বলেন। তবে এই আসক্তি কাটিয়ে সাধারণ মানুষ বেরিয়ে আসতে পারবেন এমনটা ধারণা চট করে করা যায় না।

সোশ্যাল মিডিয়ার প্রচুর উপকারিতার পাশাপাশি অপকারিতাও রয়েছে। একদিকে এই নেট মাধ্যম যেমন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ঘটনাকে আমাদের চোখের সামনে তুলে ধরতে পারছে, ঠিক তেমনভাবেই কিন্তু এই মাধ্যমে সাহায্যে বহু অপরাধের সংখ্যাও বেড়ে গিয়েছে।

আর এই সমস্ত অপরাধের কবলে পড়ছেন নিরীহ সাধারণ মানুষ। পাশাপাশি অতিরিক্ত সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের ফলেও কিন্তু বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিচ্ছে সমাজের। বিভিন্ন অদ্ভুতুড়ে ঘটনাবলীর মতন সোশ্যাল মিডিয়াতে কিন্তু পশু আর পাখির ভিডিও খুব ভাইরাল হয়ে থাকে। কিছুদিন আগেই আমরা আপনাদের একটি কথা বলা তোতাপাখির ভিডিও সম্পর্কে জানিয়েছিলাম।আজ আবারও তেমন একটি ভিডিও সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি।

ভাইরাল এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একজন ৯-১০ বছরের বাচ্চা ছেলের কাঁধে বসে রয়েছে একটা শালিক পাখি।। ঠিক যেরকম ভাবে এই বাচ্চা ছেলেটি কথা বলে চলেছে। তেমনভাবেই হুবহু অনুকরণ করে শালিক পাখিটি ও কথা বলার চেষ্টা করছে। সাধারণত কথা বলা শালিক চট করে দেখা যায় না।তাই নেট নাগরিকরা এই ভিডিওটি দেখার পর কিন্তু বেশ অবাক হয়ে গিয়েছেন বলা যায়। অনেকেই আবার ভিডিওটির সত্যতা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।

ভাইরাল ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত প্রায় ১ মিলিয়ন দর্শক দেখে নিয়েছেন। অনেকেই ভিডিওটি দেখে আনন্দ পেয়েছেন এবং নিজেদের মতামত ভাগ করে নিয়েছেন। তবে কমেন্ট বক্সে বহু মানুষ জানতে চেয়েছেন এই ভিডিওটি এডিটেড কিনা! যদিও এখনো পর্যন্ত কিছুই বোঝা যায়নি। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে আপনারাও দেখে নিতে পারেন এই ভিডিও।

Back to top button