বিনা মেশিনেই খুবই অল্প পুঁজিতে শুরু করুন এই দুর্দান্ত ব্যবসা! প্রতিদিন ইনকাম হবে ২৫০০ টাকা অবধি

নিজস্ব প্রতিবেদন: মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষের কাছে ব্যবসা এমন একটা জায়গা যা আমাদের জীবন পরিবর্তন করে দিতে পারে। তবে তার জন্য অবশ্যই কিন্তু আপনাদের সঠিক ব্যবসার পণ্য বেছে নিতে হবে। কারণ আপনারা যদি সঠিক পণ্য না বেছে নেন সেক্ষেত্রে কখনোই কিন্তু সেই ব্যবসা দাঁড়াবে না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা আপনাদের সাথে এমন একটি ব্যবসার আইডিয়া শেয়ার করে নেব যেটা কিন্তু এর আগে আপনারা হয়তো কখনোই শোনেননি।

এই ব্যবসা যদি আপনারা চালু করতে পারেন সে ক্ষেত্রে কাস্টমার আপনাদের বাড়িতে এসে জিনিস কিনে নিয়ে যাবে। সঠিকভাবে শুরু করতে পারলে এবং ভালো কোয়ালিটির জিনিস প্রোভাইড করতে পারলে কিন্তু এই ব্যবসা আপনাকে লাখপতি করে তুলতে পারে সহজেই। প্রতিদিন প্রায় ২৫০০ টাকা পর্যন্ত ইনকাম আপনারা এই ব্যবসার মাধ্যমে করতে পারবেন।।

Pop making business:

কম-বেশি আপনারা হয়তো সকলেই ভাবছেন শিরোনাম দেখে যে এটা আবার কি ব্যবসা? তাই শুরুতেই পাঠকদের উদ্দেশ্যে জানিয়ে রাখি এই পপ তৈরির ব্যবসা হল এমন একটি ব্যবসা যার সাহায্যে আপনারা খুব সহজেই বাড়ির সিলিং থেকে শুরু করে অন্যান্য অংশ ডেকোরেশন করতে পারবেন। লক্ষ্য করে দেখবেন আজকাল অনেক বাড়িতেই কিন্তু সিলিং এর উপরে ফ্লাওয়ার থেকে শুরু করে নানান ধরনের ডেকোরেশন করা হয়ে থাকে যেগুলোকে পপ বলা হয়।।

এগুলো সাদা রঙের হয়ে থাকে যা পরবর্তীতে রং করা হয়। এটি তৈরির জন্য আপনাদের সবার প্রথমে কাঁচামাল হিসেবে প্রয়োজন হবে পপ পাউডার। যারা জানেন না তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখি এটা হল প্লাস্টার অফ প্যারিস পাউডার। লোকাল মার্কেটে খোঁজ করলেই এটা কিন্তু অত্যন্ত কম দামে আপনারা পেয়ে যাবেন। আবার আপনারা চাইলে অনলাইন ওয়েবসাইট অর্থাৎ ইন্ডিয়ামার্ট ডট কম থেকেও এই পপ পাউডার গুলো কিনে নিতে পারবেন।

যদি আপনি বাংলাদেশের বাসিন্দা হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে ঢাকার নবাবপুরের মার্কেট থেকে এই জিনিসটি কিনে নিতে পারেন। এবার ছাঁচের সাহায্যে এই পপ পাউডারের সাথে আরো কিছু উপকরণ মিশিয়ে আপনাদের ডিজাইনগুলো তৈরি করে নিতে হবে। এগুলো কাস্টমারের বাড়িতে আপনারা সরাসরি সিলিং এর লাগিয়ে দিতে পারবেন।

বলতে গেলে এটা কিন্তু অল্প সময়ের কাজ একেবারেই অথচ এখানে উপার্জনের পরিমাণ মাত্রাতিরিক্ত। মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষ অত্যন্ত অল্প পুঁজিতেই এই ব্যবসাটা শুরু করতে পারবেন। আশা করছি এই ব্যবসা আপনাদের ভালো লাগবে। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে আজকের এই প্রতিবেদনটা শেষ করা যাক। এই ব্যবসার আইডিয়াটি আপনাদের কেমন লাগলো তা একটা কমেন্ট করে অবশ্যই নিজের মতামতের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button