লাল শাড়ি পরে কোমর হেলিয়ে দুলিয়ে দুর্দান্ত নাচ যুবতীর, ভাইরাল ভিডিও দেখে মুগ্ধ দর্শকরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা বহু জিনিস জানতে এবং বুঝতে পারি। আসলে ইন্টারনেট জগত এমন একটি জায়গা যা আমাদের জীবনের সঙ্গে এখন ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে গিয়েছে। স্মার্টফোনের সহজলভ্যতার কারণে এবং বিভিন্ন টেলিকম কোম্পানিগুলির নানান ধরনের দারুন ইন্টারনেট অফারের কারণে কিন্তু এখন মানুষকে আর সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করার জন্য কম্পিউটার বা ল্যাপটপের উপর শুধুমাত্র নির্ভরশীল হয়ে বসে থাকতে হয় না।

৮ থেকে ৮০ সকলেই এখন ইন্টারনেট জগতের বাসিন্দা। বিশেষ করে তরুণ-তরুণীদের মধ্যে এই নেট মাধ্যমে ব্যবহার যেন ঝড়ের গতিতে বেড়ে চলেছে বলা যায়। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে চলে এসেছি সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল একটি দারুন ভিডিও। যদি এই ভিডিওটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু আমাদের এই প্রতিবেদনটি লাইক কমেন্ট এবং শেয়ার করে দিতে ভুলবেন না।

হয়তো প্রতিবেদনটি এত দূর পর্যন্ত পড়ার পরে আপনার মনেও প্রশ্ন আসছে যে এমন কি রয়েছে সেই ভিডিওতে যে সেটা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। কম-বেশি আপনারা সকলেই সোশ্যাল মিডিয়ার অন্যতম প্লাটফর্ম ফেসবুকের সঙ্গে পরিচিত রয়েছেন। বেশ কিছু সময় ধরেই ফেসবুক ওয়াচের মাধ্যমে নানান ধরনের ভিডিও আমাদের সামনে আসে যেগুলো বেশ নজরকারা।

যেমন সম্প্রতি একটি ভিডিও সামনে এসেছে যেখানে এক সুন্দরী যুবতীকে অসাধারণ এক বাংলা গানে নাচ করতে দেখা যাচ্ছে। জানা যাচ্ছে ওই যুবতী মহিলার নাম তোড়ি। তার ফেসবুক পেজ এ চোখ রাখলে এই ধরনের আরও নাচের ভিডিও কিন্তু আপনারা দেখতে পেয়ে যাবেন। তবে তার এই ভিডিওটি যে দর্শকেরা বেশ পছন্দ করেছেন তাতে কোন সন্দেহ নেই।

ভাইরাল এই ভিডিওতে ওই যুবতীকে সাদা রঙের একটি হাকোভা ব্লাউজের সঙ্গে লাল রঙের একটি দুর্দান্ত শাড়ি আর মানানসই মেকআপে “ওরে বাংলাদেশের মেয়েরে তুই” গানে জমিয়ে কোমর দুলিয়ে নাচ করতে দেখা যাচ্ছে। দেখেই বোঝা যাচ্ছে দীর্ঘ সময় ধরে নাচের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন ওই যুবতী। কারণ প্রশিক্ষণ ছাড়া এত নিখুঁতভাবে স্টেপ বাই স্টেপ কোন নাচ করা সম্ভব নয় বলাই যেতে পারে।

যদি আপনাদেরও এই প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু আমাদের এই লেখাটি শেয়ার করে যেতে ভুলবেন না। এই যুবতী নাচের ভিডিওটি এখনো পর্যন্ত প্রায় 5 লক্ষ 17 হাজার মানুষ দেখে নিয়েছেন এবং এই ভিডিওটিতে লাইক করেছেন প্রায় 27 হাজার মানুষ। এটি সম্পর্কে আপনাদের কোন মতামত থাকলে সেটাও কিন্তু আমাদের সঙ্গে কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে পারেন।

Back to top button