সবুজ খেতের মাঝে ‘ময়না ছলাৎ ছলাৎ’ গানে অসাধারণ নেচে মন জয় করলেন সুন্দরী যুবতী, দেখুন সেই ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জন্য এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যার মাধ্যমে খুব সহজেই কিন্তু বিশ্বের যে কোন প্রান্তে পৌঁছে যাওয়া যায়। লকডাউনের পর থেকেই আমাদের দেশে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার বেড়েছে। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়া খুব সহজেই যেহেতু মানুষের প্রতিভাকে আমাদের সামনে তুলে ধরতে পারে তাই কমবয়সী ছেলেমেয়েদের মধ্যে এর ব্যবহার ব্যাপক।

অনেকেই এই ইন্টারনেট জগত ব্যবহার করে খুব সহজে নাচ-গান থেকে শুরু করে অন্যান্য ক্ষেত্রে ভাইরাল হয়ে উঠছেন। এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই আমরা পেয়েছি রানু মন্ডল আর ভুবন বাদ্যকরদের মতন মানুষদের। যদিও এখানে এক ধাক্কাতেই যেমন মানুষ আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তা পেতে পারে ঠিক তেমনভাবেই কিন্তু মানুষকে মাটিতে নামিয়ে আনতেও খুব একটা সময় লাগে না। তবে সমস্ত দিক বিবেচনা করে বলা যায় বর্তমান সময়ে আমাদের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত রয়েছে এই মাধ্যমটি।

এখানে আমরা নানান ধরনের ভিডিও দেখতে পাই যা মনকে আনন্দ দেয়। সম্প্রতি যেমন এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে আমাদের চোখের সামনে। ভিডিওতে এক যুবতীকে জনপ্রিয় লোকগানে দুর্দান্ত কায়দায় নাচ করতে দেখা যাচ্ছে। নেট নাগরিকদের এই নাচ এতটাই পছন্দ হয়েছে যে ঝড়ের গতিতে ভিডিওটি লাইক আর কমেন্ট পেয়েছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক কি রয়েছে সেই ভিডিওতে।

তুমুল ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একেবারে খোলা প্রকৃতির মাঝে দুর্দান্ত কায়দায় নাচ করে চলেছেন ঐ যুবতী।বাসন্তী রং এর শাড়ি, কালো ব্লাউজ ও মাথার চুলে বাঁধা হলুদ ফুলে তাকে অত্যন্ত সুন্দর দেখতে লাগছিল।জনপ্রিয় বাংলা ফোক গান ‘ময়না ছলাত ছলাত’ গানে নাচতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। পোশাকের সাথে তার মানানসই মেকআপ আর নিখুঁত মুখের এক্সপ্রেশন যেন এই নাচ আরো বেশি করে ফুটিয়ে তুলেছে দর্শকদের মাঝে। এতটাই সুন্দর হয়েছে এই নাচ যে দর্শকেরা প্রশংসা করে থামতে পারছেন না।

ভিডিওতে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে এই যুবতীর নাম মৌ এবং তিনি পূর্ব বর্ধমানের বাসিন্দা। দীর্ঘ সময় ধরেই নাচ শেখেন তিনি এবং এই সমস্ত ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে থাকেন। নিজস্ব চ্যানেল রয়েছে ডান্স স্টার মৌ নামে। সেখান থেকেই সাম্প্রতিক ভিডিওটি শেয়ার করে নিয়েছেন তিনি। প্রায় ৬১ হাজার মানুষ এই ভিডিওটি দেখেছেন এবং কমেন্ট বক্সে নানান ধরনের মন্তব্যে ভরিয়ে তুলেছেন।

আবার অনেকেই কিন্তু ওই যুবতীকে নাচের প্রশিক্ষণ দীর্ঘ জীবন ধরে চালিয়ে যাবার কথা বলেছেন। কারণ এই ধরনের প্রতিভা কখনোই নষ্ট হওয়া উচিত নয়। সোশ্যাল মিডিয়া না থাকলে আমরা কখনই এই ধরনের বিষয় সম্পর্কে জানতে পারতাম না। তাই দিন শেষে আমাদের একবার হলেও এই প্লাটফর্মকে মন থেকে কুর্নিশ জানানো উচিত। এই ধরনের আরো ছোট থেকে ছোট খবর পেতে নজর রাখতে থাকুন আমাদের পোর্টালের পাতায়।

Back to top button