সন্ধ্যের আড্ডা জমে যাবে জাস্ট! বাড়িতে এই সহজ গোপন ট্রিকসে বানান দারুণ টেস্টি পকোড়া

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকালীন সিজনে বিকেল হলেই সকলের মন কেমন যেন তেলেভাজা তেলেভাজা করে। তবে সব সময় কিন্তু বাজার থেকে তেলেভাজা জাতীয় খাবার কিনে নিয়ে আসা সম্ভব নয়। তাহলে কি করনীয়? অবশ্যই সর্বপ্রথম আমাদের এই প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ে নিন। কারণ আজ আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করে নিতে চলেছি একেবারে সহজ পদ্ধতিতে তৈরি পেঁয়াজের পকোড়ার রেসিপি।

গরম চায়ের সাথে যেটা বিকেলে আপনারা সহজেই খাবার হিসেবে গ্রহণ করতে পারবেন। আবার বাড়িতে অতিথি আসলেও কিন্তু চটজলদি এটা বানিয়ে দিতে পারেন। পেঁয়াজের পকোড়া তৈরি করাটা কিন্তু খুবই সহজ। একেবারে সহজ কিছু ঘরোয়া সাধারণ উপকরণ আপনাকে এই কাজে ব্যবহার করতে হবে। চলুন তাহলে আর দেরি না করে শুরু করা যাক আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন।

এই রেসিপিটি প্রস্তুত করার জন্য প্রথমেই আপনাকে পরিমাণ মতো পেঁয়াজ নিয়ে নিতে হবে। তারপর খোসা ছাড়িয়ে এগুলোকে লম্বা করে কেটে নিন। পেঁয়াজের স্লাইস যেন খুব বেশি পাতলা বা মোটা না হয়। পেঁয়াজ কাটা হয়ে গেলে এর মধ্যে স্বাদ অনুযায়ী লবণ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর কিছুক্ষণ সময় পর্যন্ত এটাকে ঢেকে রেখে দিতে হবে।

নির্ধারিত সময় পরে ঢাকনা খুলে এই পেঁয়াজের স্লাইসের মধ্যে লম্বা করে কাটা কাঁচালঙ্কা, সামান্য ধনেপাতা কুচি, ক্রাশ করে নেওয়া জোয়ান, সাবু ধনে, সামান্য পরিমাণে হলুদ গুঁড়ো, লাল লঙ্কার গুঁড়ো এবং গরম করে নেওয়া তেল নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

ভালোভাবে মিশিয়ে নেওয়ার পরে অল্প অল্প করে এই মিশ্রণের মধ্যে আপনাদের বেসন যোগ করতে হবে। এবার হাত দিয়ে ভালো করে পেঁয়াজের এই মিশ্রণের সাথে বেসন মেখে নিন। যত্ন সহকারে এই মাখার কাজটা আপনাদের করতে হবে। এবার গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে তার মধ্যে ঝটপট তেল গরম করে নিয়ে এই পেঁয়াজ আর বেসনের মিশ্রণ থেকে একটু

একটু করে নিয়ে আপনাদের চটপট পকোড়া ভেজে নিতে হবে।। ব্যস এবার এই পেঁয়াজের পকোড়া আপনারা চাটনির সাহায্যে পরিবেশন করুন। পাঠকদের সুবিধার্থে আমরা একটি চাটনির রেসিপি ও শেয়ার করে দেবো আজ। এই চাটনি কিন্তু সম্পূর্ণ রেস্টুরেন্ট স্পেশাল তৈরি হবে।

চাটনি বানানোর জন্য মিক্সিং জারের মধ্যে এক থেকে দেড় কাপ পরিমাণে ধনেপাতা নিয়ে নিন। তারপর এর মধ্যে যোগ করুন কিছুটা পরিমাণ পুদিনা পাতা, দুই থেকে তিনটি কাঁচা লঙ্কা, এক ইঞ্চি পরিমাণ আধার টুকরো এবং সামান্য লেবুর রস। তাছাড়াও এর মধ্যে উপকরণ হিসেবে দিতে হবে সামান্য পরিমাণে জিরে, স্বাদ অনুযায়ী লবণ, সামান্য কালো লবণ এবং দুই টেবিল চামচ দই।

মিক্সিং জারের মধ্যে সমস্ত উপকরণগুলোকে গ্রাইন্ড করে নিলেই কিন্তু তৈরি হয়ে যাবে স্পেশাল চাটনি। সহজেই পেঁয়াজের পকোরার সাথে এই চাটনি দিয়ে আপনারা গরম গরম চায়ের সাথে পরিবেশন করতে পারেন। খেতে কেমন লাগলো তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button