গ্যাস বার্নারের কালো জেদি ভাব মাত্র ২ মিনিটেই হবে পরিষ্কার! শুধুমাত্র ব্যবহার করুন এই দুর্দান্ত গোপন ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাড়িতে থাকা গ্যাস বার্নার কিন্তু নিয়মিত আমাদের পরিষ্কার করতে হয় না হলে প্রচুর পরিমাণে সমস্যা দেখা দেয়। গ্যাসের ফ্লেম কমে যাওয়া থেকে শুরু করে অনেক কিছুই এখানে হতে পারে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই গৃহিণীদের সুবিধার্থে গ্যাস বার্নার পরিষ্কারের দুটো সহজ আর সঠিক টিপস সম্পর্কে আলোচনা করতে চলেছি। এর জন্য কিন্তু খুব একটা খাটাখাটনি করার প্রয়োজন হবে না বা খুব বেশি অর্থ খরচেরও প্রয়োজন হবে না। চলুন তাহলে আর বেকার সময় নষ্ট না করে কিভাবে গ্যাস বার্নার পরিষ্কার করবেন সেই সম্পর্কিত দুটি টিপস চট করে জেনে নেওয়া যাক।

গ্যাস বার্নার পরিষ্কার করার সহজ দুটি উপায় যা অত্যন্ত কার্যকরী:

১) একটা পাত্রের মধ্যে কিছুটা পরিমাণ বেকিং সোডা আর লেবুর রস নিয়ে নিন। তারপর যে গ্যাস বাড়ানোর আপনারা পরিষ্কার করতে চান সেটাকে এর মধ্যে ভিজিয়ে রাখবেন। অবশ্যই সামান্য পরিমাণে গরম জল দিয়ে দেবেন এবং মোটামুটি আধ ঘন্টা সময় পর্যন্ত এই ভেজানোর কাজটি করতে হবে।

যদি লেবু না থাকে সেক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে ভিনিগারও ব্যবহার করতে পারেন।। গ্যাস বার্নার বেকিং সোডা আর লেবুর বিক্রিয়ার মাধ্যমে খুব সহজেই কিছুক্ষণ পর থেকে ময়লা ছাড়তে শুরু করে দেবে। এবার একটি পুরনো টুথব্রাশ নিয়ে আপনাদের ভালো করে ঘষে ধুয়ে বার্নারটিকে একদম নতুনের মতন চকচকে করে তুলতে হবে। হয়ে গেল প্রথম পদ্ধতি। এবার আসুন জানা নেওয়া যাক দ্বিতীয় পদ্ধতিটি কি!

২) দ্বিতীয় পদ্ধতিতে গ্যাস বাড়ানোর পরিষ্কার করার জন্য আপনাদের নিয়ে নিতে হবে ইনো। এটি আমাদের সকলেরই একটি অত্যন্ত পরিচিত জিনিস। সাধারণত গ্যাস অম্বলের সমস্যায় এটাকে ব্যবহার করা হয়ে থাকে এবং যেকোনো নিকটবর্তী মেডিকেল স্টোরেই আপনার এটা পেয়ে যাবেন। একটা পাত্রের মধ্যে ময়লা হয়ে যাওয়া গ্যাস বার্নার টিকে নিয়ে তাতে কিছুটা পরিমাণ ইনো আর সামান্য পরিমাণ উষ্ণ গরম জল ঢেলে আধঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন।

আধ ঘন্টা সময় পর ঠিক আগের পদ্ধতিতেই পুরনো টুথব্রাশ নিয়ে আপনাদের ভালোভাবে ঘষে নিতে হবে। দেখবেন আপনার গ্যাসের বার্নার একেবারে নতুনের মতন চকচক করছে এবং কোন রকমের ময়লা এর মধ্যে নেই।। দুটি টিপসের মধ্যে আপনাদের কোনটি বেশি কাজের মনে হলো বা ভাল লাগল তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button