কলকাতার একদম কাছেই দুর্দান্ত লোকেশনে খুবই সস্তায় এই সুন্দর বাগান বাড়ি বিক্রি, না দেখলে পস্তাবেন পরে

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজকালকার দিনে কিন্তু একটি সুস্থ্য স্বাভাবিক পরিবেশে বাড়ি খুঁজে পাওয়া একেবারে সহজ কাজ নয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কিছু না কিছু সমস্যা থেকেই থাকে। কখনো হয়তো কাগজপত্রের সমস্যা আবার কখনো হয়তো আমাদের মনমতো হয় না পরিবেশ। তবে আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে খুব সহজেই কিন্তু বিভিন্ন জমি জায়গার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে। তবে প্রথমেই আপনাদের বলব কোন জিনিস খরিদ করার আগে কিন্তু ভালোভাবে যাচাই করে নেওয়ার চেষ্টা করবেন। কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাপ্ত অনেক কিছুই কিন্তু ভুল হয়ে থাকে। দিন প্রতিদিন ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ার কারণে সাইবার অপরাধের সংখ্যা ও ক্রমশ বাড়ছে।

তাই স্বাভাবিকভাবেই মানুষের মনে ভয়টা থেকেই যায়। আজকে আমরা যে বাড়িটির কথা আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করতে চলেছি এই বাড়িতে কিন্তু মোটামুটি একান্নবর্তী পরিবার নিয়ে আপনারা বসবাস করতে পারবেন।। শুধুমাত্র বাড়ি না বলে এটিকে বাগানবাড়ী বলা যায়। প্রায় দশ কাঠা জমির উপর একটি বিশাল বাগান নিয়ে এই অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশের বাড়িটি অবস্থিত। বাড়িটির সম্পূর্ণ বাহিরের অংশে হলুদ রং করা রয়েছে।

ভেতরে এক একটি বেডরুমের ক্ষেত্রে রঙ আলাদা। যদি আপনাদের গাড়ি থাকে তাহলেও কোন সমস্যা হবে না বাড়ির সামনে আপনারা খুব সহজেই গ্যারেজ বানিয়ে নিতে পারবেন এতটা পরিমাণ ফাঁকা জায়গা রয়েছে। বাড়ির পেছনের অংশের বড় জায়গাটিতে আম, জাম, লিচু সহ বেশ বড় বড় কিছু পুরনো গাছ দিয়ে বাগান তৈরি করা রয়েছে। দেখেই বোঝা যায় বাগানটির দীর্ঘসময়ের পুরনো।

ইট কাঠের শহরে এই এক টুকরো সবুজের ছোঁয়া কিন্তু নিঃসন্দেহে আপনার মন ভালো করে দেবে এ কথা আমরা বলতেই পারি। এবার আসা যাক বাড়িটির অন্দরমহলের কথায়। বাড়িটির অন্দরমহলে সবমিলিয়ে রয়েছে ছটি বেডরুম, তিনটি বাথরুম, রান্নাঘর, ড্রয়িং রুম, পূজার ঘর এবং ব্যালকনি।

তবে ব্যালকনি কিন্তু খোলা অবস্থায় নেই অনেকটা আগেকার দিনের মতন বক্স করা রয়েছে। যদি প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে আপনারা কিন্তু সামান্য ডিজাইনে পরিবর্তন অবশ্যই আনতে পারেন নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী ‌। বাড়িটির মেঝে সম্পূর্ণ সাধারণ ভাবে তৈরি করা এবং বাথরুমও সাধারণভাবে তৈরি। পাশাপাশি সম্পূর্ণ বাড়িটির একটি বিশাল বড় ছাদ রয়েছে যেখানে আপনারা খুব সহজেই অবসর সময় প্রকৃতির প্রেম অনুভব করতে পারবেন।

ইএম সাউর্দান বাইপাস এর কাছে এই বাড়িটি অবস্থিত। এখান থেকে নিকটবর্তী স্টেশন কিন্তু খুব একটা দূরে নয়। বাড়িটির সামনে ১২ ফুট চওড়া রাস্তা রয়েছে। পেছনের অংশে মেন রোড না থাকলেও অনেকটাই খোলা রাস্তা দেখতে পাওয়া যায়। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠেছে এই বাড়ির একটি ভিডিও যা দেখে রীতিমত অনেকেই পছন্দ করে ফেলেছেন। এই সুযোগ যদি আপনারা হাতছাড়া করতেন না চান সেক্ষেত্রে আর দেরি না করে 8910851114 এই নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ভাইরাল ভিডিওতে কিন্তু বাড়িটির দাম সম্পর্কে কোন বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হয়নি।।

Back to top button