কলকাতার একদম কাছেই দুর্দান্ত লোকেশনে খুব সস্তায় এই সুন্দর একতলা বাড়ি বিক্রি, না দেখলে পস্তাবেন পরে

নিজস্ব প্রতিবেদন: নিজস্ব একটা চিরস্থায়ী আস্তানা না হলে কিন্তু সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের জীবনের সমস্ত চাহিদা পূরণ হয় না। আসলে নিজের বাড়ির প্রতি যে আবেগ আর ভালোবাসা রয়েছে সেটা কিন্তু কখনো পরের অধীনতায় কারোর বাড়িতে থেকে পাওয়া যায় না। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে তাই সমস্ত সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে একেবারে জলের দামে একটা বাড়ির খোঁজ আমরা আপনাদের দিতে চলেছি।

এত দারুণ ভালো লোকেশনের মধ্যেও যে এরকম দামে বাড়ি পাওয়াটা সম্ভব সেটা হয়তো আপনাদেরও কল্পনার বাইরে। প্রথমেই জানিয়ে রাখি আমাদের আজকের বাড়ির লোকেশন হলো চন্দননগর। জগদ্ধাত্রী পুজোর আলোকসজ্জার জন্য এই শহর কিন্তু দীর্ঘ সময় ধরেই খুবই বিখ্যাত। কলকাতার থেকেও এই জায়গাটি খুব বেশি দূরে নয়। চলুন এবার বাড়িটি সম্পর্কে একটু খুঁটিনাটি তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

চন্দননগরের মনসাতলা এলাকায় ২ কাঠা ২ ছটাক জমির উপর এই বাড়িটি অবস্থিত। এই বাড়িটি হলো ১৫ বছরের পুরনো সম্পত্তি। দক্ষিণ– পূর্বমুখী এই বাড়িটি একটি কর্নার প্লটে অবস্থিত যার সামনে ১২ ফুটের একটি চওড়া রাস্তা রয়েছে। বাড়িটির টোটাল কভার এরিয়া রয়েছে ১১৫০ স্কয়ার ফুট। এই বাড়িটিতে আপনারা পেয়ে যাবেন দুটি বেডরুম, দুটি টয়লেট, একটি কিচেন, একটি লিভিং কাম ডাইনিং রুম। যদি ভবিষ্যতে লোন এর প্রয়োজন হয় সেটাও কিন্তু আপনারা এই বাড়িটি থেকে খুব সহজে পেয়ে যাবেন। কারণ সমস্ত কাগজপত্র আপ টু ডেট অবস্থায় রয়েছে।

এই বাড়িটি থেকে চন্দননগর স্টেশনের দূরত্ব মাত্র ১ কিলোমিটার। এছাড়াও মাত্র ৩০০ মিটারের মধ্যেই আপনারা স্থানীয় বাজার পেয়ে যাবেন। পাশাপাশি স্কুল থেকে শুরু করে কলেজ, হসপিটাল সবকিছুই খুব সামান্য দূরত্বের মধ্যে আপনারা পেয়ে যাবেন। এখান থেকে হাওড়া স্টেশনে দূরত্ব মাত্র ৩৩ কিলোমিটার এবং কলকাতা এয়ারপোর্ট আপনারা পেয়ে যাবেন ৪২ কিলোমিটার এর মধ্যে। সমস্ত দিক বিবেচনা করে এই বাড়িটির দাম রাখা হয়েছে ৩৩.৫০ লক্ষ টাকা। যদি আপনারা এই বাড়িটি কিনতে আগ্রহী থাকেন তাহলে নিচের দেওয়া নম্বরে আর সময় নষ্ট না করে যোগাযোগ করে নেবেন।
Contact : 8240174758/8910254563.

Back to top button