বিনা তেলমশলা দিয়ে এইভাবে সহজেই মুসুর ডাল দিয়ে বানান পালং শাকের ইউনিক এই রেসিপি, খাবেন চেটেপুটে

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকাল মানে কিন্তু একেবারে রকমারি সবজির সমাহার আর বিভিন্ন সুস্বাদু পদের রান্না। দৈনন্দিন একটু নিত্যনতুন রেসিপি যারা ট্রাই করতে ভালোবাসেন তাদের সকলের জন্যই আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন। একটু একঘেয়েমি স্বাদ থেকে পরিবর্তন আনার জন্য আজকে যে রেসিপিটি আমরা শেয়ার করব তা খুব সহজেই কিন্তু বাড়িতে আপনারা বানিয়ে নিতে পারেন। কম তেলে মসুর ডাল দিয়ে পালং শাকের এই ইউনিক রেসিপি আশা করছি আপনাদের সকলেরই পছন্দ হবে।। চলুন তাহলে আর কোনরকম ভাবে সময় নষ্ট না করে প্রতিবেদনের মূল পর্বে যাওয়া যাক।

কিভাবে রান্নাটি করবেন?
একটা বড় কড়াইতে এক কাপ পরিমাণ জল নিয়ে নিন। এবার গ্যাস অন করে জলটাকে হালকা গরম করে নিন। তারপর একটা ছোট সাইজের পেঁয়াজকুচি, তিনটে ছোট কাঁচা লঙ্কা, তিন কোয়া রসুন এবং ছোট সাইজের টমেটোর অর্ধেক অংশ এর মধ্যে যোগ করুন। সামান্য পরিমাণে হলুদ আর হাফ চা চামচ লবন নিয়ে নিন। সমস্ত উপকরণ গুলো ভালোভাবে মিশিয়ে মুসুর ডাল দিয়ে দিন। আগে থেকেই আপনারা এই ডাল কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখবেন যাতে বেশ নরম অবস্থায় থাকে। মসুর ডাল সেদ্ধ হতে খুব বেশি সময় লাগে না তাই কড়াইতে দেওয়ার পর কিছুক্ষণ ঢাকা রাখলেই হয়ে যাবে। ডালের জল কিছুটা টেনে নিলে এর মধ্যে আড়াইশো গ্রাম পরিমাণ পালং শাক যোগ করুন।

শাক আগে থেকেই একটু ছোট টুকরো করে কেটে রাখবেন। শাকের জন্য এবার সামান্য লবণ দিয়ে দেবেন। তবে একবারে খুব বেশি নুন ব্যবহার করবেন না কারণ শেষে কিন্তু শাক একেবারে রান্নার পর কমে আসবে তখন লবণ বেশি হয়ে গেলে খেতে খারাপ লাগবে।। ৩ থেকে ৪ মিনিট পর্যন্ত ফুটিয়ে নিলেই পালং শাক সেদ্ধ হয়ে যাবে।

এবার এটাকে অন্য একটা পাত্রে নামিয়ে রাখুন এবং কড়াইতে সামান্য পরিমাণে তেল যোগ করে দিন।তেল গরম হলে ফোড়ন হিসেবে আপনাদের দিয়ে দিতে হবে দুটো শুকনো লঙ্কা, হাফ চা চামচ কালোজিরা এবং সামান্য রসুন। এবার এর মধ্যে একটা ছোট সাইজের পেঁয়াজ কুচি করে লাল করে ভেজে নিন। ভেজা নেবার পর একটা মাঝারি সাইজের আলু টুকরো করে কেটে এতে ঢালুন। আলুটাকেও আপনাদের ভালো করে ভেজে নিতে হবে।

তারপর আবারও এই রান্নার মধ্যে খুব সামান্য লবন আর হলুদ দিয়ে দিন। দেখবেন এই সময় পেঁয়াজ একটু পোড়া মনে হতে পারে তখন সামান্য জল দিয়ে দেবেন। এবার ঢাকনা দিয়ে পাঁচ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করুন যাতে আলুটা সেদ্ধ হয়ে যায়। আলু একটু নরম হয়ে আসলে এর মধ্যে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা ডাল আর পালং শাক যোগ করে দিন। তারপর তিনটে কাঁচা লঙ্কা চিরে এতে যোগ করুন আর ভালো করে নাড়াচাড়া করুন।

এই রান্নাটা কিন্তু একটু ঝাল হলে খেতে ভালো লাগবে।। সবকিছু ভালোভাবে মিশিয়ে নেওয়ার পর গ্যাসের ফ্ল্যেম মিডিয়ামে রেখে একটু জল শুকিয়ে নিন। জল কিছুটা টেনে আসলে উপরে এক টেবিল চামচ সরষের তেল ছড়িয়ে দিন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল ডাল দিয়ে অসাধারণ পালং শাকের রেসিপি। আপনারা চাইলে কিন্তু একটু ধনেপাতা কুচিও যোগ করে গরম ভাতের সাথে এই রেসিপিটা পরিবেশন করতে পারেন।।

Back to top button