বিনা ময়দায় এই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে গুঁড়ো দুধ দিয়ে বানিয়ে দেখুন দুর্দান্ত স্বাদের ক্ষীরের পাটিসাপটা পিঠা, খেয়ে বলবেন লা জবাব!

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকাল মানেই নানান ধরনের পিঠে পুলির সমাহার। যার মধ্যে আমরা সবার প্রথমেই উল্লেখ করতে পারি পাটিসাপটার কথা। বিভিন্নভাবে এই পাটিসাপটা তৈরি করা যায় তবে আজকের এই প্রতিবেদনে আমরা যে রেসিপিটি শেয়ার করে নেব সেভাবে বানালে কিন্তু মুখে লেগে থাকবে। সব থেকে বড় ব্যাপার বাচ্চা থেকে বড় সবাই এটা খুব পছন্দ করবে এবং বারবার খেতে চাইবে। ময়দা বা চালের গুঁড়ো কিছুই কিন্তু এই পাটিসাপটা তৈরি করতে গেলে আপনাদের প্রয়োজন হবে না। চলুন সময় নষ্ট না করে আজকের এই প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

এই পদ্ধতিতে পাটিসাপটা তৈরি করার জন্য হাফ লিটার ফুল ক্রিম দুধ নিয়ে নিতে হবে। যখন দুধ ফুটে উঠবে তখন গ্যাসের আঁচ কম করে দেবেন। লো ফ্লেমে মিনিট পনেরো সময় ধরে দুধ জ্বাল দিয়ে নিন। দুধ মোটামুটি ঘন হয়ে এলে হাফ কাপের থেকে সামান্য বেশি চিনি এতে যোগ করতে হবে। এবার দুই চামচ পরিমাণে চালের গুঁড়ো একটু জল দিয়ে গুলে গ্যাস অফ করে আপনাদের দুধে যোগ করতে হবে। খুব ভালো করে আবারো সমস্ত উপকরণ গুলো মিশিয়ে ফেলুন। মেশানো হয়ে গেলে আবার গ্যাস অন করে এটাকে লো ফ্লেমে ফুটিয়ে নিন।

এবার গ্যাসে একটা কড়াই বসিয়ে সেখানে হাফ চামচ ঘি দিয়ে দিন। ঘি গলে গেলে সামান্য পরিমাণে দুধ দিয়ে দিন। এবার এর মধ্যে আপনাদের যোগ করতে হবে ১০০ গ্রাম পরিমাণে গুঁড়ো দুধ। সবকিছু খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নেবেন যাতে কোন রকমের দানাদার ভাব না থাকে। গ্যাস অফ করে আগে থেকে বানিয়ে রাখা ঘন দুধটাকে এর মধ্যে দিয়ে দিন।। সবকিছু ভালো করে মিশিয়ে আবারো গ্যাস অন করে ফুটিয়ে আরেকটু ঘন করে নিন। এই সময় কিন্তু দুধ টাকে অনবরত নাড়াচাড়া করবেন না হলে তলা ধরে যেতে পারে। কড়াই থেকে যখন এটা ছেড়ে দেবে তখন বুঝা যাবেন খিরসা তৈরি হয়ে গেছে। একটা পরিষ্কার থালার মধ্যে এই ক্ষীরসা ঢেলে নিন।

পরবর্তী ধাপে আপনাদের নিয়ে নিতে হবে হাফ কাপ পরিমাণে পাতলা চিড়ে । চিড়ে টাকে ধুয়ে নরম করে নেবেন। মিক্সিং জারের মধ্যে ঠিক যতটা চিড়ে নিয়েছিলেন ততটাই আপনাদের সুজি নিয়ে নিতে হবে। এরপর এরমধ্যে সামান্য পরিমাণে টক দই আর, কয়েক চামচ চিনি এবং লবণ যোগ করুন। জল দিয়ে এগুলোকে ভালোভাবে একটা মিহি পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। এবার পাটিসাপটা বানানোর জন্য প্যানে একটু ঘি ব্রাশ করে নিয়ে তাতে গোলাটা ঢেলে দেবেন।

একটু এদিক ওদিক করে এটাকে ছড়িয়ে গ্যাসের আঁচ স্লো করে ঢাকা দিয়ে দিন। এবার মাঝখানে ক্ষীর দিয়ে আপনাদের পাটিসাপটা রোল করে নিতে হবে এবং দুই দিক ভালো করে ঘি লাগিয়ে ভেজে নিতে হবে।। ব্যাস তাহলেই তৈরি হয়ে গেল একেবারে ইউনিক পদ্ধতিতে তৈরি খিরসা পাটিসাপটা। শীতকালে বাড়ির সদস্য এবং বাড়িতে আসা অতিথিদের আপনারা খুব সহজেই এই পিঠে পরিবেশন করতে পারেন। রেসিপিটি কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না।

Back to top button