নৌকায় চড়ে মাছ ধরতে গিয়ে ঘটলো বিপত্তি! পাড়ে আসাতেই আচমকা হামলা করলো বিরাট আকৃতির বাঘ, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ায় পশু পাখি সংক্রান্ত বিভিন্ন ভিডিও প্রায় সময় ভাইরাল হয়ে থাকে। আসলে খালি চোখে যেহেতু এই সমস্ত দৃশ্য চট করে ধরা দেয় না তাই মানুষ নেট মাধ্যমে সাহায্যে এগুলো উপভোগ করে থাকেন। সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে খুব সহজেই কোন ঘটনা উঠে আসে। ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম এর মতন প্লাটফর্ম গুলিতে যেভাবে ভিডিওগুলো ভাইরাল হয়ে ওঠে তা হয়তো গণমাধ্যমেও হয় না।

আজকাল অনেকেই তাই সোশ্যাল মিডিয়াকে টেলিভিশন বা রেডিওর থেকেও বেশি শক্তিশালী বলে মনে করছেন। যদিও বিশেষজ্ঞদের একাংশ এ ব্যাপারটা মানতে রাজি নন। তবে এ কথা কোন ভাবেই অস্বীকার করা যাবে না যে সোশ্যাল মিডিয়া বর্তমান সময়ে মানুষের জীবনের একটা অঙ্গে রূপান্তরিত হয়েছে।

লক্ষ্য করে দেখবেন কোন ঘটনা ঘটলে সেটা কিন্তু ঝড়ের গতিতে ইন্টারনেট জগতে উঠে চলে আসে। ৮ থেকে ৮০ সকলেই এখনই সোশ্যাল মিডিয়ার বাসিন্দা। কাজের মধ্যেই হোক বা অবসর সময়ে এই সোশ্যাল মিডিয়াতে সময় কাটাতে অত্যন্ত পছন্দ করেন মানুষ। সত্যি কথা বলতে সোশ্যাল মিডিয়া মানুষকে অবসর বিনোদন এতটাই দিয়েছে যে সেটা মানুষের আসক্তিতে পরিণত হয়ে গিয়েছে। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা নেট মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও নিয়েই আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি।

ভিডিওটি সুন্দরবন অঞ্চল থেকে ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে। আপনারা সকলেই জানেন পৃথিবীর অন্যতম বনভূমি গুলির মধ্যে রয়েছে সুন্দরবন।সুন্দরবনের মোট আয়তন প্রায় ১০ হাজার বর্গ কিলোমিটার, যা যৌথভাবে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অবস্থিত। জীববৈচিত্রে সমৃদ্ধ সুন্দরবনের ১,৮৭৪ বর্গকিলোমিটার জুড়ে রয়েছে নদীনালা ও বিল মিলিয়ে জলাকীর্ণ অঞ্চল। রয়েল বেঙ্গল টাইগার সহ বিচিত্র নানান ধরণের পাখি, চিত্রা হরিণ, কুমির ও সাপসহ অসংখ্য প্রজাতির প্রাণীর আবাসস্থল হিসেবে সুন্দরবন পরিচিত।

এখানে রয়েছে প্রায় ৩৫০ প্রজাতির উদ্ভিদ, ১২০ প্রজাতির মাছ, ২৭০ প্রাজাতির পাখি, ৪২ প্রজাতির স্তন্যপায়ী, ৩৫ সরীসৃপ এবং ৮ টি উভচর প্রাণী। সুন্দরী বৃক্ষের নামানুসারে এই বনের নাম সুন্দরবন রাখা হয়। সুন্দরবনের ভেতরে যেতে হলে নৌপথই একমাত্র উপায়। তাই জীবন-জীবিকা নির্বাহ থেকে শুরু করে যে কোন কাজের জন্যই কিন্তু এখানকার মানুষ নৌকা ব্যবহার করেন।

যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রায় ছয় থেকে সাত জন যুবক সম্ভবত এই সুন্দরবনের কোন নদীতে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন নৌকো করে। কিন্তু আচমকাই তারা ডাঙ্গার কাছে একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগার কে তাদের দিকে দৌড়ে আসতে দেখেন। প্রথমে যদিও তারা খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন কিন্তু শেষমেষ নৌকার মধ্যে পড়ে থাকা বাঁশের সাহায্যে দৌড়ে আক্রমণ করতে আসা বাঘটিকে তাড়া করেন তারা।।

বাঘটি জলের মধ্যে আর দাঁড়িয়ে থাকতে না পেরে শেষমেষ দৌড়ে পালিয়ে যায়। যদি সেই অংশের জলের পরিমাণ খুব বেশি না হতো তাহলে হয়তো এই মানুষগুলি ওই বাঘের আক্রমণের মুখে পড়ে প্রাণ হারাত। এরকম ঘটনা যে ঘটেনি তার জন্য আমরা সকলেই ভগবানের কাছে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই দৃশ্যটি দেখে রীতিমতন অবাক হয়ে গিয়েছেন সকলে।

Wildindia news নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত প্রায় ৪.৮ মিলিয়ন মানুষ এই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন। ভিডিওটি পছন্দ করেছেন প্রায় ৩০ হাজার মানুষ এবং এতে কমেন্ট করেছেন প্রায় ২ হাজার মানুষ। এই ভয়াবহ দৃশ্যের ভিডিওটি যদি আপনাদেরও পছন্দ হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই কিন্তু নিজেদের মতামত কমেন্ট বক্সে শেয়ার করতে ভুলবেন না। এই ধরনের আরো নানান আশ্চর্যকর দৃশ্যের ভিডিও এবং প্রতিবেদন সম্পর্কে জানতে আমাদের পোর্টালের কথায় নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button