রুটি বা ভাতের সাথে জমে যাবে পুরো! একবার খুব সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানিয়ে দেখুন বেগুনের এই নতুন রেসিপি

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকালীন বিভিন্ন অসাধারণ সবজির মধ্যে একেবারে প্রথম সারিতে রয়েছে বেগুন। এই বেগুনের প্রচুর পুষ্টিমূল্য রয়েছে। এটি দিয়ে নানান ধরনের পদ তৈরি করা যেতে পারে। বেগুন ভাজা থেকে শুরু করে বেগুন ভর্তা অথবা বেগুন দিয়ে নানান ধরনের সুস্বাদু তরকারি সবকিছুই কিন্তু আপনারা প্রায় সময় খেয়ে থাকেন।

তবে সর্বদা একঘেয়ে রেসিপি তৈরি না করে একটু ইউনিক ভাবে ট্রাই করে দেখুন না! আজ আমরা আপনাদের সাথে এমনই একটি বেগুনের রেসিপি শেয়ার করে নেব যা বাচ্চা থেকে বড় সকলেই কিন্তু খুব পছন্দ করবে। সুস্বাদু এই রেসিপিটি ভাত থেকে শুরু করে রুটি, পরোটা অথবা লুচির সাথেও পরিবেশন করা যাবে । চলুন দেখে নেওয়া যাক এই রেসিপিটা কিভাবে তৈরি করা যেতে পারে।

বেগুনের তৈরি নতুন রেসিপি:

রান্নাটি করার জন্য প্রথমেই দুটি বড় সাইজের বেগুন নিয়ে সেটাকে ভালো করে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর গোল গোল পিস করে এটাকে কেটে নিতে হবে। এবার বেগুনের মধ্যে হাফ চামচ হলুদের গুঁড়ো, সামান্য লঙ্কার গুঁড়ো, ছোট চামচ এর হাফ চামচ ধনে গুঁড়ো এবং স্বাদমতন লবণ নিয়ে নিন। সমস্ত মসলাগুলোকে বেগুনের গায়ে এবার ভালো করে লাগিয়ে নিন। এবার গ্যাসে একটা তাওয়া বসিয়ে দিন এবং তাতে দুই চামচ সাদা তেল যোগ করুন।

তেল ভালোভাবে গরম হয়ে গেলে এতে মশলা মাখিয়ে রাখা বেগুনগুলো দিয়ে খুব ভালো করে ভেজে নিতে হবে। গ্যাসের ফ্লেম মিডিয়ামে রেখে আপনাদের বেগুনগুলোকে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে এবং একদিক ভাজা হয়ে গেলে অন্যদিকে উল্টে দিতে হবে। বেগুন ভাজা হয়ে গেলে একটা বড় সাইজের আলু নিয়ে ঠিক একই রকম ভাবে গোল করে কেটে নিন। জল দিয়ে ভালো করে আলু ধুয়ে নেওয়ার পরে এর মধ্যে সামান্য পরিমাণে লবণ আর হলুদের গুঁড়ো যোগ করে মাখিয়ে নিন।

এবার ওই তাওয়ার মধ্যেই আরো কিছুটা পরিমাণ সাদা তেল যোগ করে একই রকম ভাবে আলুগুলো কেও ভেজে নিতে হবে। তারপর গ্যাসে একটা করায় বসিয়ে তাদের দেড় টেবিল চামচ সরষের তেল যোগ করুন। তেল গরম হয়ে গেলে এতে ছোট চামচের হাফ চামচ গোটা জিরে, মাঝারি সাইজের একটা পেঁয়াজ কুচি, মাঝারি সাইজের টমেটো পিউরি, আদা রসুন বাটা এবং দুটো কাঁচা লঙ্কা কুচি দিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে।

যতক্ষণ পর্যন্ত আদা রসুনের কাঁচা গন্ধ না চলে যাচ্ছেন নাড়াচাড়া করতে থাকুন। তারপর এতে গুঁড়ো মসলা হিসেবে যোগ করতে হবে সামান্য হলুদের গুঁড়ো, লাল লঙ্কার গুঁড়ো, হাফ চামচ জিরা গুঁড়ো, হাফ চামচ ধনে গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং সামান্য পরিমাণে চিনি। সবশেষে হাফ চামচের একটু কম আমচুর পাউডার যোগ করবেন। একটু জল দিয়ে মসলাটাকে কষিয়ে নেবেন। মসলা ভালোভাবে কষে গেলে এতে আরো একটু জল যোগ করে গ্যাসের ফিল্ম মিডিয়ামে রেখে দুই মিনিট সময় পর্যন্ত ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে।

অন্যদিকে মিক্সার গ্রাইন্ডার এর মধ্যে ২ চামচ চিনেবাদাম আর সামান্য পরিমাণ একটু ধনেপাতা নিয়ে একটা মিহি পেস্ট তৈরি করে ফেলুন। কষিয়ে নেওয়া মসলার মধ্যে বাদাম আর ধনেপাতার এই পেস্ট যোগ করুন। যে পাত্রের মধ্যে আপনারা পেস্ট রেখেছিলেন সেটা ধুয়েই আরো কিছুটা জল কড়াইতে দেবেন। একটা ছোট সাইজের পেঁয়াজ বড় করে কেটে এতে দিন। ভালো করে গ্রেভির সাথে এটাকে কিন্তু মিশিয়ে দিতে হবে।

পেঁয়াজ মশলার সাথে ভালোভাবে কষে গেলে এতে আরো একটু জল যোগ করুন। গ্রেভি ফুটে উঠতে শুরু করলে এর মধ্যে ভেজে রাখা আলু এবং ভেজে রাখা বেগুন যোগ করে দিন। উপর থেকে ছড়িয়ে দিন সামান্য পরিমাণে শাহী গরম মসলা। গ্যাসের ফ্লেম মিডিয়ামে রেখে হালকা হাতে নাড়াচাড়া করে এটাকে মিশিয়ে নিন। কিছুক্ষণ ঢাকা দিয়ে কুক করে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে বেগুনের এই অসাধারণ রেসিপি। উপর থেকে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে গরম গরম ভাত অথবা রুটির সাথে পরিবেশন করে ফেলুন।।

Back to top button