ছোট থেকে বড় সবার হবে পছন্দ! খুব সহজেই এইভাবে ঝটপট বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ক্ষীরসা পিঠা

নিজস্ব প্রতিবেদন: শীতকাল মানেই এমন কিছু খাবারের সম্ভার যা জিভে জল আনতে বাধ্য করে। বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি থেকে পিঠে পুলির মতন অসাধারণ রেসিপি সবকিছুই কিন্তু এই সময় বাঙালির হেশেলের জায়গা দখল করে নেয়। দুধপুলি থেকে শুরু করে ভাপা পিঠে অথবা নানান ধরনের পাটিসাপটা এই সময় তৈরি করা হয়ে থাকে। গ্রামাঞ্চলের মধ্যে এই রেসিপিগুলো যেন আরো বেশি রকমের জনপ্রিয়।

শহরের মানুষরা ব্যস্ততার জন্য আজকাল অনেক জিনিস কিন্তু দোকান থেকে রেডিমেড কিনেই খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু এখনো বহু মানুষ রয়েছেন যারা একেবারে মা দিদিমাদের মতন ভালোবেসে যে কোন রান্না তৈরি করে খাওয়াতে ভালোবাসেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে খিরসা পাটিসাপটার একটি রেসিপি। একজন গ্রাম্য বধূ সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক পরিবেশের মধ্যে এই রান্নাটি করেছেন যা বেশ পছন্দ করেছেন দর্শকেরা। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এই রেসিপিটাই আপনাদের সাথে শেয়ার করে নেব।

খিরসা পাটিসাপটার প্রয়োজনীয় উপকরণ:

রেসিপিটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের যে সমস্ত উপকরণ প্রয়োজন হবে তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো —
1.গরুর দুধ
2.গুঁড়ো দুধ
3.নলেন গুড়ের পাটালি
4. লবণ
5. চিনি
6.এলাচ
7. ময়দা
8. সাদা তেল এবং
9. দুবাটি পরিমাণে ভেজানো আতপ চাল।

রন্ধন প্রণালী:

১) পাটিসাপটা তৈরির জন্য প্রথমেই গরুর দুধ জাল করে নিতে হবে। গরুর দুধ আর গুঁড়ো দুধ অর্থাৎ দুই রকমের দুধ দিয়ে তৈরি করলে কিন্তু খিরসা খেতে খুব ভালো লাগবে। দুধ জ্বাল হতে হতে আপনাদের আতপ চালগুলিকে বেটে নিতে হবে। দুধ জ্বাল দেওয়ার পরে অনেকটা কমে গেলে এতে এক প্যাকেট পরিমাণে গুঁড়ো দুধ মিশিয়ে নেবেন। পরিমাণ মতো চিনি আর পাটালি যোগ করে দিন। পাটালি ব্যবহার করলে খিরসা একটু লাল রঙের হয়ে যাবে। এবার আগে থেকে থেঁতলানো এলাচ এতে যোগ করবেন।

খিরসা যাতে আরো একটু ঘন হয়ে যায় তার জন্য এতে অল্প করে চাল বাটা যোগ করুন। পিঠার ভেতর থেকে যাতে পুর বেরিয়ে যেতে না পারে এটাকে সেরকম ঘনত্বের তৈরি করবেন। এবার আগে থেকে যে চাল বাটা তৈরি করে রেখেছিলেন সেটাতে কিছুটা ময়দা যোগ করে দেবেন। এক চিমটি লবণ আর অল্প অল্প জল যোগ করে এবার এটাকে মাখতে থাকুন। একবারে পুরো জলটা কিন্তু ঢালবেন না। ভালো করে মিশিয়ে একটা পাতলা ব্যাটার তৈরি করে নিন।

২) এবার আপনাদের একটা তাওয়া নিয়ে নিতে হবে। তাওয়ার উপরে সামান্য পরিমাণে তেল ব্রাশ করে নিন।চালবাটা আর ময়দা দিয়ে যে ব্যাটার তৈরি করেছিলেন সেখান থেকে এক হাতা নিয়ে তাওয়াতে দিয়ে দিন। একটু তাওয়াটাকে ঘুরিয়ে নিন যাতে ছড়িয়ে যায়। এরমধ্যে এক চামচ করে খিরসা যোগ করুন। তারপর খুন্তির সাহায্যে এটাকে রোল করে দেবেন।

৩) প্রত্যেকবার ব্যাটার দেওয়ার আগে কিন্তু আপনাদের একবার করে তাওয়াতে সামান্য তেল ব্রাশ করে দিতে হবে। দুই দিক ভালো করে ভাপিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে খিরসা পাটিসাপটা। ক্ষীর কিন্তু বেশ ঘন ভাবেই তৈরি করবেন যাতে কোনভাবেই এটা পাটিসাপটা থেকে বেরিয়ে না যায়, তাহলে কিন্তু পাটিসাপটার স্বাদ খারাপ হয়ে যাবে। তৈরি হয়ে গেল খিরসা পাটিসাপটা। খুব সহজেই তৈরি এই রেসিপি বাড়ির সকলকে খাইয়ে আপনি কিন্তু চমকে দিতে পারেন। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে আমাদের প্রতিবেদনটি সকলের সাথে শেয়ার করে নিন।

Back to top button